পাঁচ দাবিতে ঢাকা আলিয়ার শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

সরকারি মাদরাসা-ই-আলিয়া প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের ভবন নির্মাণ, হল ও মাদরাসা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) মাদরাসার প্রশাসনিক অফিসের সামনে তারা এ কর্মসূচি পালন করেন। এসময় দ্রুত ক্যাম্পাস খুলে দেওয়া ও প্রিন্সিপালের পদত্যাগের দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের দাবি, হল ছাড়তে মাদরাসা প্রশাসন অযৌক্তিকভাবে একের পর এক নোটিশ দিচ্ছে। এতে করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিব্রত। এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত আচরণ বন্ধ করতে হবে। আলিয়া মাদরাসার নিজস্ব জায়গায় অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না। তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

জানা গেছে, রাজধানী বখশিবাজারের ঢাকা আলিয়া মাদরাসার একমাত্র ছাত্রাবাস ‘আল্লামা কাশগরী (র.) হল’। এই হল সুপারের বাসা ভেঙে ছাত্রাবাসের ভেতরে মাদরাসা ও কারিগরি অধিদপ্তরের ভবন করার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানান শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে কেন্দ্র করে হঠাৎ হল বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে মাদরাসার শিক্ষা কার্যক্রমও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এ নিয়ে মাদরাসা প্রাঙ্গণে উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা হল না ছাড়লে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে হেনস্থা করারও হুমকি দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ শিক্ষার্থীদের।

শিক্ষার্থীদের ৫ দফা দাবি—
>> কোনো অবস্থাতেই আবাসিক হল বন্ধ করা যাবে না
>> শিক্ষার্থীদের আবাসন সংকট নিরসন করতে হবে
>> হল প্রাঙ্গণে অধিদপ্তর নির্মাণ করা যাবে না
>> শিক্ষার্থীদের ওপর আরোপিত সব হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার করতে হবে
>> শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে কোনো ধরনের বাণিজ্য চলবে না

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) অনশন কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা। দাবি আদায় না হলে গণঅনশনের কথাও জানান শিক্ষার্থীরা।