The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ২৪শে জুন, ২০২৪

৪ হাজার ১শত ফ্রি ই-বুক এক্সেস পাবে বাকৃবি শিক্ষার্থীরা

বাকৃবি প্রতিনিধি: বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ৪ হাজার ১ শত ফ্রি ই-বুকের এক্সেস পাবে। বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ আগামী ১ বছরের জন্য ‘এলসভিয়ার ই-বুক’ সাবক্রাইব করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইপি রেঞ্জের মধ্যে থাকলেই শিক্ষার্থীরা এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারবে।

১৬ মে (বৃহস্পতিবার) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ে এলসভিয়ার (ঊষংবারবৎ) ই-বুক অ্যাক্সেস এবং ডাউনলোড বিষয়ক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগার শাখা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা কমিটির কো-অর্ডিনেটর অধ্যাপক ড. মো. আবু হাদী নূর আলী খানের সভাপতিত্বে এবং লাইব্রেরীয়ান (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ মো. খায়রুল আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমদাদুল হক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিন কাউন্সিলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. ছাজেদা আখতার। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কৃষি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. গোলাম রাব্বানী, কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান, কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. জয়নুল আবেদিন, ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মো. হারুন-অর-রশিদ, সহযোগী ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. আফরিনা মুস্তারিসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও কর্মকর্তাবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের সভাপতি আবু হাদী নূর আলী খান তার বক্তব্যে জানান, লাইব্রেরিতে প্রচুর হার্ডকপি বই রয়েছে। সেগুলোর ব্যবহার কমে যাওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া। পরবর্তীতে স্প্রিঞ্জার কোম্পানীর সাথে যুক্ত হওয়ার ইচ্ছাও আমাদের রয়েছে। যদিও আমরা আপাতত ই-বুকের এক্সেস এক বছরের জন্য নিয়েছি, পরবর্তীতে এই এক্সেস এর সঠিক মূল্যায়ন দেখতে পেলে আমরা পরবর্তীতে আরো বড় চুক্তিতে আবদ্ধ হবো। ফ্রি এক্সেস বইগুলোর মধ্যে এগ্রিকালচার, বায়োলজিক্যাল এবং ফুড বিষয়ের বই বেশি রয়েছে। ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল রিলেটেড বই কম রয়েছে। এগুলো পরবর্তীতে সংযোজন করা হবে।

প্রধান অতিথি বাকৃবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমদাদুল হক চৌধুরী বলেন, ইদানিং হার্ডকপির চেয়ে সফটকপি বেশি গুরত্বপূর্ণ। এটি কম সময়সাপেক্ষ ও কম পরিশ্রমের। টাকা দিয়ে জিনিস কিনলে হবে না। যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে। আমাদের প্রয়োজনীয় বইগুলো সেখানে থাকতে হবে। ব্যয় করা অর্থের সঠিক ব্যবহার করতে হবে। স্ব স্ব অনুষদে ফোকাল পয়েন্ট বানাতে হবে যাতে তাদের অনুষদের সাথে সংশ্লিষ্ট বইগুলো তারা ডাউনলোড করে রাখবেন।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.