The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪

মেডিকেলে পাস ৪৯ হাজার ১৯৪ জন, পাসের হার ৩৫.৩৪

২০২২-২৩ সেশনের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। এতে পাস করেছেন ৪৯ হাজার ১৯৪ জন। আজ রোববার (১২ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়েরমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানান।

তিনি আরও জানান, এ বছর পাস করেছে ৪৯ হাজার ১৯৪ জন। পাসের হার ৩৩ দশমিক ৩৪ শতাংশ। এর মধ্যে পাস করা ছেলের সংখ্যা ২০,৮১৩ জন (৪৩.৩১%) এবং মেয়ের সংখ্যা ২৮.৩৮১ জন (৫৭.৬৯%)।

সরকারি মেডিকেল কলেজে সুযোগপ্রাপ্ত ছেলের সংখ্যা ১,৯৫৭ জন (৪৫.০০%), মেয়ে ২,৩৯৩ জন (৫৫.০০%)।

এ বছর মেধাতালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেছেন রাফসান জামান। ভর্তি পরীক্ষায় তাঁর প্রাপ্ত নম্বর ৯৪.২৫। তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেন।

অন্যদিকে লিখিত পরীক্ষায় মেয়েদের মধ্যে সর্বোচ্চ নম্বর প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর প্রাপ্ত নম্বর ৮৮.০০।

আরো পড়ুন: মেডিকেলে পাসের হারে এবারও এগিয়ে মেয়েরা

এর আগে গত ১০ মার্চ কোনো প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই শেষ হয় এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা। রাজধানীর ৫টিসহ দেশের ১৯টি কেন্দ্রের ৫৭টি ভেন্যুতে একযোগে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এ বছর মোট আবেদনকারীর সংখ্যা এক লাখ ৩৯ হাজার ২১৭ জন। গতবছর যা ছিল ১ লাখ ৪৩ হাজার ৯১৫ জন। গত বছরের মতো এবছরও সরকারি মেডিকেলে মোট আসন সংখ্যা রয়েছে ৪ হাজার ৩৫০টি। তবে বেসরকারি মেডিকেলে এবার আসন সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। গতবছর বেসরকারি মেডিকেলে আসন ছিল ৬ হাজার ৪৮৯টি, এবার তা বাড়িয়ে করা হয়েছে ৬ হাজার ৭৭২টি।

সরকারি মেডিকেলে ভর্তির জন্য আসন প্রতি লড়েছে ৩২ জন শিক্ষার্থী। আর সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ১০৮টি মেডিকেল কলেজে মোট আসন রয়েছে ১১ হাজার ১২২টি। সেই হিসাবে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়েন ১২ জন পরীক্ষার্থী। দেশে মোট সরকারি মেডিকেল কলেজে মেধা কোটায় তিন হাজার ৩৮৪ জন, জেলা কোটায় ৮৪৬ জন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ৮৭ জন ও উপজাতি কোটায় ৩৩ জন ভর্তি হতে পারবেন।

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.