The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

বিশ্বকাপে ঘটেই চলেছে অঘটন, বিদায় ঘন্টা বাজলো আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের

সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ান ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বিশ্বকাপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হলে আজ। অবিশ্বাস্য হলেও মনে হলেও এই অঘটনের শিকার গেইলের দেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজ, তারা এবারের বিশ্বকাপের মূলপর্বে যাওয়া লড়াইয়ে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে এক বিশাল ব্যবধানে হেরে গেছে।

আয়ারল্যান্ডের কাছে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেরে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ!

গেইলদের দেওয়া ১৪৭ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ১৫ বল হাতে রেখেই জয়ের স্বাদ পান আইরিশরা।

বলাচলে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর্দাই উঠেছে অঘটন ঘটিয়ে। যেখানে এশিয়া চ্যাম্পিয়ন শ্রীলংকাকে নাম জসহীন নামিবিয়ার কাছে হারতে হয়েছে।

তারই ধারাবাহীকতায় দ্বিতীয় দিনেও ঘটলো অঘটন!! দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ান ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিদায় ঘন্টা আয়ারল্যান্ডের হাতে।

বাচা মরার লড়াইয়ে হারলেই বিদায়- এমন এক কঠিন সমীকরণ সামনে রেখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আয়ারল্যান্ড তাদের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয়।

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে আইরিশ বোলারদের তোপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এর ম্যাচ থামে ১৪৬ রানে।

ম্যাচের দ্বিতিয়াদ্ধে ১৪৭ রানের সাধারণ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আইরিশরা ওপেনিং জুটিতেই ৭৩ রান তোলে। এর মধ্যে পাওয়ার প্লেতেই এসেছে অবিচ্ছিন্ন ৬৪ রান। যেখানেই মূলত ম্যাচের ভাগ্য নির্ধরিত হয়ে যায়।

আকিল হোসেন করা ম্যাচের ৮ম ওভারের ৩য় বলে পয়েন্টে ক্যাচ তুলে বালবিরনি সাজঘরে ফিরেন। পয়েন্টে বালবিরনির ক্যাচ তালবন্দি করেন কাইল মায়ার্স এর আগেই তার ব্যাট ছুঁয়ে আসে ৩৭ রান।

বালবিরনির পরে লোরকান টাকারকে সঙ্গী করে ম্যাচের ১১তম ওভারে দলীয় সংগ্রহ শতক ছাড়িয়ে যান ওপেনার পল স্টার্লিং। টাকার তার ব্যক্তিগত সংগ্রহ যখন ১৭ রান তখনই ১২তম ওভারে স্মিথের বলে কট এন্ড বোল্ড হন, কিন্তু নো বলের কল্যাণে জীবন ফিরে পান টাকার। স্মিথের ওই ওভারেই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৪৯ বলে ফিফটি করেন স্টার্লিং।

ম্যচের ১৮তম ওভারের ৩য় বলে জয়সূচক বাউন্ডারি হাঁকান টাকার। ফলে ১৫ বল হাতে রেখেই আইরিশদের বিজয় এনে দেন স্টার্লিং-টাকার জুটি। এ জুটি থেকে এসেছে অপরাজিত ৭৮ রান। পল স্টার্লিং ওপেনিংয়ে নেমে শেষ অবধি অপরাজিত থেকে ৬ বাউন্ডারি এবং ২ ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে ৪৮ বলে করেন ৬৮ রান। টাকার ৩৫ বলে নটআউট ৪৫ রান করেছেন।

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই হাত খুলে খেলতে পারেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটাররা।

২৭ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারিয়ে তারা বিপদে পড়েন। কাইল মায়ার্স ১ আর জনসন চার্লস ১৮ বলে ২৪ করে ফিরে জান সাজঘরে। এর পর উইকেট ধরে রেখে ধীরগতির ইনিংস খেলেন এভিন লুইস। এভিন লুইস করেন ১৮ বলে ১৩ মাত্র রান।

অধিনায়ক নিকোলাস পুরান আজও ব্যর্থ হন ১১ বল খেলে ১৩ রান করে আউট হয়ে ফেরেন সাজঘরে। তারপর রভম্যান পাওয়েলও ৮ বলে মাত্র ৬ রানে ফিরলে ১১২ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েন ক্যারিবীয়রা।

তবে একটা প্রান্তে একাই লড়াই চালিয়ে যান ব্রান্ডন কিং। ৪৮ বলে ৬ চার আর ১ ছক্কায় ৬২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন তিনি। ওডিয়েন স্মিথ ঝড়ো গতিতে ১২ বলে তোলেন ১৯ রান।

আইরিশ বোলার গ্যারেথ ডেলাইনির হাতে ওঠে ম্যান অব দ্য ম্যাচের খেতাব। ৪ ওভারে ১৬ রান দিয়ে তিনি নেন ৩ উইকেট।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. খেলাধুলা
  3. বিশ্বকাপে ঘটেই চলেছে অঘটন, বিদায় ঘন্টা বাজলো আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের

বিশ্বকাপে ঘটেই চলেছে অঘটন, বিদায় ঘন্টা বাজলো আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের

সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ান ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বিশ্বকাপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হলে আজ। অবিশ্বাস্য হলেও মনে হলেও এই অঘটনের শিকার গেইলের দেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজ, তারা এবারের বিশ্বকাপের মূলপর্বে যাওয়া লড়াইয়ে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে এক বিশাল ব্যবধানে হেরে গেছে।

আয়ারল্যান্ডের কাছে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেরে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ!

গেইলদের দেওয়া ১৪৭ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ১৫ বল হাতে রেখেই জয়ের স্বাদ পান আইরিশরা।

বলাচলে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর্দাই উঠেছে অঘটন ঘটিয়ে। যেখানে এশিয়া চ্যাম্পিয়ন শ্রীলংকাকে নাম জসহীন নামিবিয়ার কাছে হারতে হয়েছে।

তারই ধারাবাহীকতায় দ্বিতীয় দিনেও ঘটলো অঘটন!! দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ান ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিদায় ঘন্টা আয়ারল্যান্ডের হাতে।

বাচা মরার লড়াইয়ে হারলেই বিদায়- এমন এক কঠিন সমীকরণ সামনে রেখে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আয়ারল্যান্ড তাদের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয়।

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে আইরিশ বোলারদের তোপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এর ম্যাচ থামে ১৪৬ রানে।

ম্যাচের দ্বিতিয়াদ্ধে ১৪৭ রানের সাধারণ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে আইরিশরা ওপেনিং জুটিতেই ৭৩ রান তোলে। এর মধ্যে পাওয়ার প্লেতেই এসেছে অবিচ্ছিন্ন ৬৪ রান। যেখানেই মূলত ম্যাচের ভাগ্য নির্ধরিত হয়ে যায়।

আকিল হোসেন করা ম্যাচের ৮ম ওভারের ৩য় বলে পয়েন্টে ক্যাচ তুলে বালবিরনি সাজঘরে ফিরেন। পয়েন্টে বালবিরনির ক্যাচ তালবন্দি করেন কাইল মায়ার্স এর আগেই তার ব্যাট ছুঁয়ে আসে ৩৭ রান।

বালবিরনির পরে লোরকান টাকারকে সঙ্গী করে ম্যাচের ১১তম ওভারে দলীয় সংগ্রহ শতক ছাড়িয়ে যান ওপেনার পল স্টার্লিং। টাকার তার ব্যক্তিগত সংগ্রহ যখন ১৭ রান তখনই ১২তম ওভারে স্মিথের বলে কট এন্ড বোল্ড হন, কিন্তু নো বলের কল্যাণে জীবন ফিরে পান টাকার। স্মিথের ওই ওভারেই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৪৯ বলে ফিফটি করেন স্টার্লিং।

ম্যচের ১৮তম ওভারের ৩য় বলে জয়সূচক বাউন্ডারি হাঁকান টাকার। ফলে ১৫ বল হাতে রেখেই আইরিশদের বিজয় এনে দেন স্টার্লিং-টাকার জুটি। এ জুটি থেকে এসেছে অপরাজিত ৭৮ রান। পল স্টার্লিং ওপেনিংয়ে নেমে শেষ অবধি অপরাজিত থেকে ৬ বাউন্ডারি এবং ২ ওভার বাউন্ডারির সাহায্যে ৪৮ বলে করেন ৬৮ রান। টাকার ৩৫ বলে নটআউট ৪৫ রান করেছেন।

টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই হাত খুলে খেলতে পারেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটাররা।

২৭ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে হারিয়ে তারা বিপদে পড়েন। কাইল মায়ার্স ১ আর জনসন চার্লস ১৮ বলে ২৪ করে ফিরে জান সাজঘরে। এর পর উইকেট ধরে রেখে ধীরগতির ইনিংস খেলেন এভিন লুইস। এভিন লুইস করেন ১৮ বলে ১৩ মাত্র রান।

অধিনায়ক নিকোলাস পুরান আজও ব্যর্থ হন ১১ বল খেলে ১৩ রান করে আউট হয়ে ফেরেন সাজঘরে। তারপর রভম্যান পাওয়েলও ৮ বলে মাত্র ৬ রানে ফিরলে ১১২ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েন ক্যারিবীয়রা।

তবে একটা প্রান্তে একাই লড়াই চালিয়ে যান ব্রান্ডন কিং। ৪৮ বলে ৬ চার আর ১ ছক্কায় ৬২ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন তিনি। ওডিয়েন স্মিথ ঝড়ো গতিতে ১২ বলে তোলেন ১৯ রান।

আইরিশ বোলার গ্যারেথ ডেলাইনির হাতে ওঠে ম্যান অব দ্য ম্যাচের খেতাব। ৪ ওভারে ১৬ রান দিয়ে তিনি নেন ৩ উইকেট।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন