The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪

বাকৃবিতে শিক্ষার্থী মারধর এবং শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

বাকৃবি প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) শিক্ষার্থীকে মারধর এবং শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। কমিটিতে মাইক্রোবায়োলজি এন্ড হাইজিন বিভাগের অধ্যাপক ড. সুকুমার সাহাকে সভাপতি এবং সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. শফিকুল ইসলামকে সদস্য-সচিব করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি গঠন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. ছাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিজ্ঞপ্তিতে আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন উদ্যাতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মোক্তার হোসেন, ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আলমগীর হোসেন-২, পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আজহারুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, জোরপূর্বক কক্ষে প্রবেশ করে শিক্ষককে লাঞ্ছনা এবং মাসহ এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি খন্দকার তায়েফুর রহমান রিয়াদের বিরুদ্ধে। গত ১০ জানুয়ারি সন্ধ্যার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অনুষদের ফার্মাকোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. পূর্বা ইসলামের কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. আফরিনা মুস্তারিকে লাঞ্ছিত করা হয় এবং মারধর করা হয় ভেটেরিনারি অনুষদের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আফতাব দুর্বারকে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. বাকৃবিতে শিক্ষার্থী মারধর এবং শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

বাকৃবিতে শিক্ষার্থী মারধর এবং শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

বাকৃবি প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) শিক্ষার্থীকে মারধর এবং শিক্ষক লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠিত হয়েছে। কমিটিতে মাইক্রোবায়োলজি এন্ড হাইজিন বিভাগের অধ্যাপক ড. সুকুমার সাহাকে সভাপতি এবং সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. শফিকুল ইসলামকে সদস্য-সচিব করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি গঠন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. ছাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিজ্ঞপ্তিতে আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন উদ্যাতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. মোক্তার হোসেন, ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আলমগীর হোসেন-২, পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আজহারুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, জোরপূর্বক কক্ষে প্রবেশ করে শিক্ষককে লাঞ্ছনা এবং মাসহ এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি খন্দকার তায়েফুর রহমান রিয়াদের বিরুদ্ধে। গত ১০ জানুয়ারি সন্ধ্যার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অনুষদের ফার্মাকোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. পূর্বা ইসলামের কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. আফরিনা মুস্তারিকে লাঞ্ছিত করা হয় এবং মারধর করা হয় ভেটেরিনারি অনুষদের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আফতাব দুর্বারকে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন