দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নিজস্ব সিদ্ধান্ত

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, বৈশ্বিক পরিস্থিতিতে উচ্চশিক্ষার কোন বাঁধ থাকার কথা নয়। কিন্তু বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো একবার ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগে দুইবার দেওয়া যেতো। এমনকি এক সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে একবার দেওয়ার পরীক্ষার মধ্যে আরও একটি সুযোগ ছিল। এখন সেটি আর রাখা হচ্ছে না। এখন একবার ভর্তির সুযোগ কারছে।

আজ রবিবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে আলোচনা চলার কথাও বলেন তিনি।

এক প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নিজস্ব সিদ্ধান্ত। তারা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান। তবুও আমরা ইউজিসিসহ তাদের সাথে কথা বলেছি এবং বলছি। আমরা শিক্ষার্থীদের সুযোগ বাড়াতে চাই।

তার মতে, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একই মেধা ও মানের শিক্ষার্থী ভর্তি নেবে। তাই দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষা নিলে তো মান কমাবে না। তাহলে একাধিক সুযোগ দিয়ে একই মেধার শিক্ষার্থী ভর্তি নেয়াতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আপত্তি থাকা উচিত না।

তিনি আরও বলেন, আমরা কারিগরি শিক্ষার ক্ষেত্রে আমরা বয়সের বাঁধা তুলে দিয়েছি। বিশ্বের অনেক দেশে শিক্ষার ক্ষেত্রে বয়সের বাঁধা নেই। আমাদেরকেও এক সময় হয় তো সেই জায়গায় যেতে হবে। তবে সেটা কি এখনই যেতে পারবো নাকি আরও সময় লাগবে সেটি আমাদের বিবেচনার বিষয়। যেকোন পর্যায় থেকে যে কেউ যেন উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পায় সেই ব্যবস্থাটি আমাদেরকে করে দিতে হবে।