The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪

ঢাবির সান্ধ্যকোর্সের ভর্তিতে পাস নম্বর ৪০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন নামে চালু হচ্ছে সান্ধ্যকোর্স। এখন থেকে কোর্সটি পরিচিত হবে ‘প্রফেশনাল ও এক্সিকিউটিভ মাস্টার্স প্রোগ্রাম নামে।’ সমালোচনার মুখে প্রায় দুই বছর ভর্তি কার্যক্রম বন্ধ ছিলো এই কোর্সের। সেসময় সান্ধ্যকোর্স থাকবে কিনা সেটি নিয়ে যাচাই-বাছাই করতে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি গঠন করেছিলো বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে এই কোর্সের জন্য নতুন নীতিমালার অনুমোদন দেয় সিন্ডিকেট।

নীতিমালা অনুযায়ী, প্রফেশনাল ও এক্সিকিউটিভ মাস্টার্স প্রোগ্রামে শিক্ষার্থী ভর্তিতে পরীক্ষা হবে। ভর্তি পরীক্ষায় ন্যূনতম ৪০ নম্বর পেতে হবে ভর্তিচ্ছুদের। শিক্ষাজীবনের কোনো পরীক্ষায় তৃতীয় শ্রেণি থাকা যাবে না, জিপিএ বা সিজিপিএর ক্ষেত্রে ২ দশমিক ৫-এর নিচে থাকতে পারবে না। এসব নতুন নিয়ম মেনে শিক্ষার্থী-ভর্তি করতে হবে। অনুমোদন ছাড়া এ ধরনের প্রোগ্রাম পরিচালনা করা যাবে না। তবে প্রত্যেক বিভাগ এ ধরনের সর্বোচ্চ একটি কোর্স চালু করতে পারবে।

এ বিষয়ে কমিটির প্রধান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, নতুন নীতিমালার আলোকে পরিচালিত হবে প্রফেশনাল ও এক্সিকিউটিভ মাস্টার্স প্রোগ্রাম। কোনো বিভাগ প্রোগ্রামটি শুরু করার আগে একাডেমিক কাউন্সিলে অনুমোদন করে নেবেন। যেসব বিভাগ একাধিক প্রোগ্রাম চালু রেখেছে তাদের নতুন করে আবেদন করতে। তারা কোন প্রোগ্রামটি চালু রাখতে চান সেটি একাডেমিক কাউন্সিলে উত্থাপন করতে হবে। একাডেমিক কাউন্সিল অনুমোদন দিলে তবেই তারা শিক্ষার্থী ভর্তি করাতে পারবেন।

২০০২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে প্রথম সান্ধ্যকোর্স চালু করা হয়। শিক্ষকদের অতিরিক্ত আয়ের সুযোগ থাকায় অল্প দিনেই সান্ধ্যকোর্স বেশ জনপ্রিয়তা পায়। দুই দশকের কম সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ৩৫টি বিভাগ ও ইনস্টিটিউটে ৬৯টি সান্ধ্যকোর্স চালু করা হয়।

তীব্র সমালোচনার মুখে ২০২০ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় সান্ধ্য কোর্সসহ অনিয়মিত সব ধরনের কোর্সে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। এ ছাড়া সান্ধ্য কোর্স পরিচালনার জন্য সময়োপযোগী বিধিমালা প্রণয়নে কমিটিও করা হয়েছিল। গত ২১ মার্চ একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় কমিটির তৈরি বিধিমালা উপস্থাপন করা হয়। সিন্ডিকেটের সভায় বিষয়টি চূড়ান্ত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ‘জাতীয় চাহিদা বিবেচনায় নীতিমালার আলোকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেশনাল বা এক্সিকিউটিভ মাস্টার্স প্রোগ্রাম চালু করতে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।’

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.