ঢাবির ভর্তি আবেদন আড়াই লাখ ছুঁই ছুঁই, শেষ ১০ মে

২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন আগামী ১০ মে (মঙ্গলবার) শেষ হচ্ছে। এদিন রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত ভর্তিচ্ছুরা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সবকটি ইউনিটে এখন পর্যন্ত প্রায় ২ লাখ ৪২ হাজার ভর্তিচ্ছু আবেদন করেছেন।

রবিবার (০৮ মে) বিকেল ৪টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক এবং কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, গত বুধবার (২০ এপ্রিল) থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়। এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে এই অনলাইন আবেদন গ্রহণ ও ফি জমা দেয়ার কার্যক্রম উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আবেদন শুরুর পর থেকে আজ বিকেলে পর্যন্ত প্রায় ২ লাখ ৪২ হাজারের অধিক ভর্তিচ্ছু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন করেছেন। গেল বছর মোট আবেদন সংখ্যা ছিল ২ লাখ ৭০ হাজার। এখনো ২ দিন বাকি রয়েছে। এ বছরও আবেদনের সংখ্যাটা সেদিকে যাবে বলেই মনে হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউনিট প্রতি আবেদনের সংখ্যা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘চ’ ইউনিটে প্রায় ৫ হাজার, ‘খ’ ৪৯ হাজার, ‘ঘ’ ৬০ হাজার, ‘ক’ ১ লাখ ১ হাজার, ‘গ’ ২৫ হাজারের অধিক ভর্তিচ্ছু আবেদন করেছেন। সবকটি ইউনিটে নির্দিষ্ট সংখ্যার চেয়ে আবেদন সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে। এছাড়া আবেদনের সময় বাড়ার সম্ভাবনা নেই। নির্দিষ্ট তারিখেই ভর্তি আবেদন শেষ হচ্ছে।

আবেদন শেষে ১৬ মে থেকে পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগ পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে। গতবারের মতো এবারও ঢাকাসহ আটটি বিভাগীয় শহরের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে কেন্দ্র স্থাপন করে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে। বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা নেয়ার যুক্তি দেখিয়ে এবার ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফি ৩৫০ টাকা বাড়িয়ে ১ হাজার টাকা করা হয়েছে।

জানা গেছে, এবছর ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটে আসন সংখ্যা ৯৩০টি। এই ইউনিটে আবেদনযোগ্য প্রার্থীর সংখ্যা ১ লাখ ৯৪ হাজার ৬২০ জন। একটি আসনের বিপরীতে লড়বে ২০৯ জন। কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটে মোট আসন রয়েছে ১ হাজার ৭৮৮ টি। এই ইউনিটে আবেদনযোগ্য প্রার্থীর সংখ্যা ৩ লাখ ৪৮ হাজার ৭১৩ জন। প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ১৯৫ জন ভর্তিচ্ছু।

বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটে মোট আসন রয়েছে ১ হাজার ৮৫১টি। এই ইউনিটে আবেদনযোগ্য প্রার্থীর সংখ্যা ২ লাখ ১১ হাজার ৬৮০ জন। আসন প্রতি লড়বে ১১৪ জন।

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটে মোট আসন রয়েছে ১ হাজার ৩৩৬টি। এই ইউনিটে আবেদনযোগ্য প্রার্থীর সংখ্যা ৫ লাখ ৭ হাজার ৫২৭ জন। আসন প্রতি লড়বে ৩৮০ জন। চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটে ১৩০টি আসন রয়েছে। এই অনুষদে আবেদন করতে পারবেন ১০ লাখ ৬ হাজার ১৪১ জন। আসন প্রতি লড়বেন ৭৭৪০ জন।