The Rising Campus
News Media
বৃহস্পতিবার, ২রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

কুবিতে প্রথমবারের মতো মেয়েদের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

কুবি প্রতিনিধি: প্রথমবারের মতো কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) ছাত্রীদের নিয়ে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছে। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯ টায় কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে এ খেলার উদ্বোধন করেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন। এতে অংশগ্রহণ করে নওয়াব ফয়জুন্নেসা চৌধুরাণী হল ও শেখ হাসিনা হল।

টসে জিতে শেখ হাসিনা হলের অধিনায়ক মাহমুদা তাহিরা ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন।নির্ধারিত ৮ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে তাদের সংগ্রহ ছিলো ৫২ রান।৫৩ রানের টার্গেটে ফয়জুন্নেসা হল ৩ উইকেট হারিয়ে তাদের কাঙ্খিত বিজয় ছিনিয়ে আনে।দলের পক্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করেন ফয়জুন্নেসা হলের প্লেয়ার শামিমা সুলতানা শান্ত।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যক্ষ ড.মো.আসাদুজ্জামান, ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ও নৃবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আইনুল হক,প্রক্টর(ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকী,বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড.মুহাম্মদ শামসুজ্জামান মিলকী,শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট মো.সাহেদুর রহমান,নবাব ফয়জুন্নেসা হলের প্রভোস্ট ও গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জিল্লুর রহমান,দুই ছাত্রী হলের হাউস টিউটরসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্হিত ছিলেন।

বিজয়ের অর্জনের বিষয়ে ফয়জুন্নেসা হলের প্রভোস্ট জিল্লুর রহমান জানান, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই প্রথম মেয়েদের একটা ক্রিকেট টুর্নামেন্ট হয় যা ইতিহাসের একটি অংশ। আর সেই অংশ হিসেবে আমি এটার অংশীদার। এই টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে গত পনেরো দিন ধরেই আমাদের প্লেয়ারদের প্র্যাক্টিস চলে।তার ফলশ্রুতিতে আমাদের হল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

টিম ম্যানেজার প্রভাষক সাদিয়া জাহান: টিম ম্যানেজার হিসেবে প্রথম যে স্টেপ টা ছিলো তা হলো টিম মেম্বার সিলেক্ট করা। প্রাইমারি স্টেপে আমরা আটত্রিশ জন প্লেয়ার থেকে চৌদ্দোজনের একটা টিম সিলেক্ট করি এবং সকাল-বিকেল তাদের অনুশীলন করাই। বল ব্যাট সহ সকল সরঞ্জাম আমরা সরবরাহ করার চেষ্টা করেছি।

ক্রীড়া কমিটির আহবায়ক আইনুল হক বলেন,আমরা চাই যে ছেলেদের পাশাপাশি আমাদের মেয়েরাও সহশিক্ষা কার্যক্রমগুলোতে সক্রিয় থাকুক। এবার শুধু দুই হলের মধ্যে খেলা হচ্ছে। আগামী বছর থেকে এটি আরো বৃহৎ আকারে আয়োজন করবো। বর্তমানে মেয়েরা সব ক্ষেত্রেই ভালো করছে। আমরা চাই যে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েরাও জাতীয় পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব করুক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন বলেন, বাংলাদেশের সব জায়গায় মেয়েরা স্পোর্টসে এগিয়ে যাচ্ছে।তখন দেখলাম কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়েদের কোনো খেলা হচ্ছে না। তাই আমাদের মেয়েদের নিয়ে ক্রিকেট খেলার আয়োজন করা।

প্রসঙ্গত, কুবির শারীরিক শিক্ষা বিভাগের ব্যবস্হাপনায় আন্তঃবিভাগ ও আন্তঃহল(ছাত্রী) ক্রিকেট প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

0
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. হোম
  2. ক্যাম্পাস
  3. কুবিতে প্রথমবারের মতো মেয়েদের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

কুবিতে প্রথমবারের মতো মেয়েদের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

কুবি প্রতিনিধি: প্রথমবারের মতো কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) ছাত্রীদের নিয়ে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছে। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯ টায় কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে এ খেলার উদ্বোধন করেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন। এতে অংশগ্রহণ করে নওয়াব ফয়জুন্নেসা চৌধুরাণী হল ও শেখ হাসিনা হল।

টসে জিতে শেখ হাসিনা হলের অধিনায়ক মাহমুদা তাহিরা ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন।নির্ধারিত ৮ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে তাদের সংগ্রহ ছিলো ৫২ রান।৫৩ রানের টার্গেটে ফয়জুন্নেসা হল ৩ উইকেট হারিয়ে তাদের কাঙ্খিত বিজয় ছিনিয়ে আনে।দলের পক্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করেন ফয়জুন্নেসা হলের প্লেয়ার শামিমা সুলতানা শান্ত।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যক্ষ ড.মো.আসাদুজ্জামান, ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ও নৃবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আইনুল হক,প্রক্টর(ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকী,বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড.মুহাম্মদ শামসুজ্জামান মিলকী,শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট মো.সাহেদুর রহমান,নবাব ফয়জুন্নেসা হলের প্রভোস্ট ও গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জিল্লুর রহমান,দুই ছাত্রী হলের হাউস টিউটরসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্হিত ছিলেন।

বিজয়ের অর্জনের বিষয়ে ফয়জুন্নেসা হলের প্রভোস্ট জিল্লুর রহমান জানান, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই প্রথম মেয়েদের একটা ক্রিকেট টুর্নামেন্ট হয় যা ইতিহাসের একটি অংশ। আর সেই অংশ হিসেবে আমি এটার অংশীদার। এই টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে গত পনেরো দিন ধরেই আমাদের প্লেয়ারদের প্র্যাক্টিস চলে।তার ফলশ্রুতিতে আমাদের হল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

টিম ম্যানেজার প্রভাষক সাদিয়া জাহান: টিম ম্যানেজার হিসেবে প্রথম যে স্টেপ টা ছিলো তা হলো টিম মেম্বার সিলেক্ট করা। প্রাইমারি স্টেপে আমরা আটত্রিশ জন প্লেয়ার থেকে চৌদ্দোজনের একটা টিম সিলেক্ট করি এবং সকাল-বিকেল তাদের অনুশীলন করাই। বল ব্যাট সহ সকল সরঞ্জাম আমরা সরবরাহ করার চেষ্টা করেছি।

ক্রীড়া কমিটির আহবায়ক আইনুল হক বলেন,আমরা চাই যে ছেলেদের পাশাপাশি আমাদের মেয়েরাও সহশিক্ষা কার্যক্রমগুলোতে সক্রিয় থাকুক। এবার শুধু দুই হলের মধ্যে খেলা হচ্ছে। আগামী বছর থেকে এটি আরো বৃহৎ আকারে আয়োজন করবো। বর্তমানে মেয়েরা সব ক্ষেত্রেই ভালো করছে। আমরা চাই যে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েরাও জাতীয় পর্যায়ে প্রতিনিধিত্ব করুক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈন বলেন, বাংলাদেশের সব জায়গায় মেয়েরা স্পোর্টসে এগিয়ে যাচ্ছে।তখন দেখলাম কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে মেয়েদের কোনো খেলা হচ্ছে না। তাই আমাদের মেয়েদের নিয়ে ক্রিকেট খেলার আয়োজন করা।

প্রসঙ্গত, কুবির শারীরিক শিক্ষা বিভাগের ব্যবস্হাপনায় আন্তঃবিভাগ ও আন্তঃহল(ছাত্রী) ক্রিকেট প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন