The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪

কক্সবাজারে হোটেল কক্ষে মিললো তরুণীর মরদেহ

কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ কক্সবাজারে হোটেল কক্ষ থেকে শারমিন আক্তার (২৬) নামের এক তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) সদর এ তথ্য নিশ্চিত করেন মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত মো. নাজমুল হুদা।

বুধবার রাত ১১টার দিকে শহরের হোটেল-মোটেল জোনের হোটেল আল মারওয়া নামক আবাসিক হোটেল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। শারমিন আক্তার গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার মহসিন শেখের মেয়ে।

হোটেল আল-মারওয়ার কর্মচারী মিনহাজ জানান, মঙ্গলবার ভোরে একটি লাগেজসহ একা তাদের হোটেলে উঠেন ওই তরুণী। পরদিন বুধবার রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া না যাওয়ায় ওই রুমে গিয়ে কয়েকবার ডাকেন তিনি। কিন্তু ভেতর থেকে সাড়া পাওয়া না যাওয়ায় পরে ম্যানেজারসহ পুলিশকে খবর দেন তারা। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. নাজমুল হুদা।

সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. নাজমুল হুদা জানান, ওই তরুণী ঢাকা থেকে এসে মঙ্গলবার ভোরে হোটেল আল- মারওয়ার ১৩১ নম্বর কক্ষে উঠেছিলেন। পরে হোটেল রুমের ভেতরে দীর্ঘসময় তার কোনো সাড়া না পেয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ গিয়ে দরজা ভেঙে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় তরুণীর মরদেহটি উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, এটি আত্মহত্যা। তরুণীর স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে আরো খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. অপরাধ ও শৃঙ্খলা
  3. কক্সবাজারে হোটেল কক্ষে মিললো তরুণীর মরদেহ

কক্সবাজারে হোটেল কক্ষে মিললো তরুণীর মরদেহ

কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ কক্সবাজারে হোটেল কক্ষ থেকে শারমিন আক্তার (২৬) নামের এক তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) সদর এ তথ্য নিশ্চিত করেন মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত মো. নাজমুল হুদা।

বুধবার রাত ১১টার দিকে শহরের হোটেল-মোটেল জোনের হোটেল আল মারওয়া নামক আবাসিক হোটেল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। শারমিন আক্তার গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার মহসিন শেখের মেয়ে।

হোটেল আল-মারওয়ার কর্মচারী মিনহাজ জানান, মঙ্গলবার ভোরে একটি লাগেজসহ একা তাদের হোটেলে উঠেন ওই তরুণী। পরদিন বুধবার রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া না যাওয়ায় ওই রুমে গিয়ে কয়েকবার ডাকেন তিনি। কিন্তু ভেতর থেকে সাড়া পাওয়া না যাওয়ায় পরে ম্যানেজারসহ পুলিশকে খবর দেন তারা। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. নাজমুল হুদা।

সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. নাজমুল হুদা জানান, ওই তরুণী ঢাকা থেকে এসে মঙ্গলবার ভোরে হোটেল আল- মারওয়ার ১৩১ নম্বর কক্ষে উঠেছিলেন। পরে হোটেল রুমের ভেতরে দীর্ঘসময় তার কোনো সাড়া না পেয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ গিয়ে দরজা ভেঙে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় তরুণীর মরদেহটি উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে, এটি আত্মহত্যা। তরুণীর স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে আরো খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন