আইসিসি বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে সবচেয়ে বেশি খেলোয়াড় বাংলাদেশের

আইসিসির গতকাল প্রকাশ করা বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা পান মোস্তাফিজুর রহমান। আজ প্রকাশিত ওয়ানডের বর্ষসেরা দলে জায়গা পেলেন বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার—মোস্তাফিজুর রহমান, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম।

বর্ষসেরা ওয়ানডে দলের এই একাদশে বাংলাদেশ থেকেই সবচেয়ে বেশি খেলোয়াড় জায়গা পেয়েছেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা, পাকিস্তান, আয়ারল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা থেকে দুজন করে খেলোয়াড় বর্ষসেরা এই দলে জায়গা পেয়েছেন। ভারত, অস্ট্রেলিয়া কিংবা নিউজিল্যান্ডের মতো দল থেকে কারও জায়গা হয়নি গত বছরের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে বানানো এই দলে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে সব দলই গত বছর টি-টোয়েন্টি বেশি খেলেছে। বাকি সময়ও টেস্ট ক্রিকেটই প্রাধান্য পেয়েছে। ফলে পূর্ণ সদস্য দলগুলোর মধ্যে ১০ বা এর বেশি ওয়ানডে খেলেছে শুধু বাংলাদেশ (১২), শ্রীলঙ্কা (১৫), আয়ারল্যান্ড (১৪) ও দক্ষিণ আফ্রিকা (১০)।

এ কারণেই মাত্র তিনটি ওয়ানডে জেতা দক্ষিণ আফ্রিকার দুজন জায়গা পেয়েছেন আইসিসির দলে। দলকে চার ম্যাচ জিতিয়েই শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের দুজন বর্ষসেরা দলে এসেছেন। বছরের ৬ ম্যাচের ৪টিতেই হারের পরও যেমন পাকিস্তানের দুজন আছেন বছরের সেরা দলে।

পাকিস্তান থেকে জায়গা পেয়েছেন বাবর আজম ও ফখর জামান। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ইয়ানেমান মালান ও রাসি ফন ডার ডুসেন। আয়ারল্যান্ড থেকে জায়গা পেয়েছেন গত বছর ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করা পল স্টার্লিং।

তাঁর সঙ্গে ওপেনার হিসেবে জায়গা পেয়েছেন মালান। আয়ারল্যান্ডের স্পিনার সিমি সিংয়েরও জায়গা হয়েছে দলে। শ্রীলঙ্কার লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ও পেসার দুষ্মন্ত চামিরাকেও রাখা হয়েছে।

গত বছর তিন শতক ও দুটি অর্ধশতক করা স্টার্লিং ১৪ ম্যাচে ৭০৫ রান তোলেন। তাঁর জায়গা পাওয়াটা মোটামুটি নিশ্চিতই ছিল। ধারাবাহিকভাবে রান পেলেও মাঠে ভুগেছে তাঁর দল আয়ারল্যান্ড। মালান তাঁর ওপেনিং সতীর্থ হিসেবে জায়গা পেয়েছেন ৮ ম্যাচে ৫০৯ রান তুলে।

প্রতিপক্ষের কন্ডিশনেও ভালো করেছেন অল্প সময়ের মধ্যে প্রোটিয়া দলে নিজের জায়গা পোক্ত করা এ ব্যাটসম্যান। গত বছর মাত্র ৬ ম্যাচ খেলা বাবর আজম এই দলে ব্যাট করবেন তিনে। গত বছর ৬৭.৫০ গড়ে ৪০৫ রান তোলেন পাকিস্তান অধিনায়ক।

চারে ব্যাট করবেন পাকিস্তানেরই ফখর জামান। গত বছর ৬ ম্যাচে ৩৬৫ রান তোলেন বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান। এর মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১৯৩ রানের ইনিংসও ছিল। এই দলে ছয়ে ব্যাট করবেন সাকিব।

গত বছর ৯ ম্যাচে ২৭৭ রানের পাশাপাশি ১৭ উইকেট নেন এই স্পিন অলরাউন্ডার। উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান হিসেবে সাতে নামবেন মুশফিক। গত বছর ৯ ম্যাচে ৪০৭ রান করেন তিনি। গত বছর ৫.০৩ ইকোনমি রেটে ১০ ম্যাচে ১৮ উইকেট নেন মোস্তাফিজ।

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দল: পল স্টার্লিং, ইয়ানেমান মালান, বাবর আজম, ফখর জামান, রাসি ফন ডার ডুসেন, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, মোস্তাফিজুর রহমান, সিমি সিং ও দুষ্মন্ত চামিরা।