The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪

বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদের সেবায় জবি শিক্ষার্থীর ই-কমার্স সাইট

জবি প্রতিনিধি: বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়াতে ই-কমার্স সাইট খুলেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী মুন্তাছির ছামি। তার তৈরিকৃত সাইটটি হলো bongobazar2.com। এরই মাঝে সাইটটির উন্নয়ন কাজ চলছে। ব্যবসায়ীরা চাইলে ওয়েবসাইটটি বিনামূল্যে তাদের উপহার দিবেন ছামি। ছামি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

ছামির বানানো ই-কমার্স সাইটটি দিয়ে তিনি বিনামূল্যে বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদেরকে প্রদান করতে চান। ওয়েবসাইটটি মূলত একটি মাল্টিভেন্ডর ই-কমার্স সাইট বলে জানান ছামি।

ই-কমার্স সাইটটি সম্পর্কে ছামি জানান, বঙ্গবাজার মার্কেট যেমন অনেকগুলি দোকানের সমন্বয়ে গঠিত ছিল তেমনি এই অনলাইন মার্কেটটি অনেকগুলি অনলাইন দোকান নিয়ে গঠিত হবে। এখানে প্রত্যেক ব্যবসায়ীর জন্য দোকান থাকবে।

তিনি আরও জানান, ব্যবসায়ীদের বঙ্গবাজার মার্কেটে থাকা দোকানের নামের মত এখানেও তাদের দোকানের নাম দিয়ে তারা একটি করে দোকান খুলতে পারবেন। তাদের দোকানে রাখা পণ্যের মত এই ওয়েবসাইটে তাদের পণ্যের ছবি, দাম ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করতে পারবেন। এতে ক্রেতারা খুব সহজেই স্বল্প সময়ে কেনাকাটা করতে পারবে।

তরুণ এই উদ্যোক্তা জানান, এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দেশজুড়ে সবাই তাদের থেকে পণ্য অর্ডার করতে পারবে। এতে ব্যবসায়ীরা কয়েক দিনের মধ্যেই তাদের ব্যবসায় ফিরতে পারবেন। এছাড়াও সাইটটিতে একজন ব্যবসায়ী খুচরা ও পাইকারি দুই উপায়েই পণ্য বিক্রি করতে পারবেন। দেশজুড়ে গ্রাহকরা খুচরা অথবা পাইকারি হিসেবে পণ্য ক্রয় করতে পারবেন ও ঘরে বসে ডেলিভারি পাবেন। ক্যাশ অন ডেলিভারিতে পণ্য হাতে পেয়ে টাকা পরিশোধ করারও সুযোগ থাকছে এখানে।

ছামি জানান, তিনি নিজ উদ্যোগে ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছেন এবং বিনামূল্যে তিনি এটা ব্যবসায়ীদেরকে ব্যবহারের জন্য প্রদান করতে চান। এজন্য তিনি বঙ্গবাজারের কর্তৃপক্ষের কাছে ওয়েবসাইটটি হস্তান্তর করতে চান এবং ব্যবসায়ীদেরকে এই ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করার জন্য বলতে চান।

ছামির মতে, ব্যবসায়ীদের জন্য এটা এই মুহূর্তে অন্যতম ভালো একটা উপায় হবে ব্যবসায় ফেরার। একই সাথে তারা সময়োপযোগী প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের জন্য একটি উদাহরণ হয়ে থাকবেন।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদের সেবায় জবি শিক্ষার্থীর ই-কমার্স সাইট

বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদের সেবায় জবি শিক্ষার্থীর ই-কমার্স সাইট

জবি প্রতিনিধি: বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়াতে ই-কমার্স সাইট খুলেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী মুন্তাছির ছামি। তার তৈরিকৃত সাইটটি হলো bongobazar2.com। এরই মাঝে সাইটটির উন্নয়ন কাজ চলছে। ব্যবসায়ীরা চাইলে ওয়েবসাইটটি বিনামূল্যে তাদের উপহার দিবেন ছামি। ছামি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

ছামির বানানো ই-কমার্স সাইটটি দিয়ে তিনি বিনামূল্যে বঙ্গবাজারের ব্যবসায়ীদেরকে প্রদান করতে চান। ওয়েবসাইটটি মূলত একটি মাল্টিভেন্ডর ই-কমার্স সাইট বলে জানান ছামি।

ই-কমার্স সাইটটি সম্পর্কে ছামি জানান, বঙ্গবাজার মার্কেট যেমন অনেকগুলি দোকানের সমন্বয়ে গঠিত ছিল তেমনি এই অনলাইন মার্কেটটি অনেকগুলি অনলাইন দোকান নিয়ে গঠিত হবে। এখানে প্রত্যেক ব্যবসায়ীর জন্য দোকান থাকবে।

তিনি আরও জানান, ব্যবসায়ীদের বঙ্গবাজার মার্কেটে থাকা দোকানের নামের মত এখানেও তাদের দোকানের নাম দিয়ে তারা একটি করে দোকান খুলতে পারবেন। তাদের দোকানে রাখা পণ্যের মত এই ওয়েবসাইটে তাদের পণ্যের ছবি, দাম ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করতে পারবেন। এতে ক্রেতারা খুব সহজেই স্বল্প সময়ে কেনাকাটা করতে পারবে।

তরুণ এই উদ্যোক্তা জানান, এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দেশজুড়ে সবাই তাদের থেকে পণ্য অর্ডার করতে পারবে। এতে ব্যবসায়ীরা কয়েক দিনের মধ্যেই তাদের ব্যবসায় ফিরতে পারবেন। এছাড়াও সাইটটিতে একজন ব্যবসায়ী খুচরা ও পাইকারি দুই উপায়েই পণ্য বিক্রি করতে পারবেন। দেশজুড়ে গ্রাহকরা খুচরা অথবা পাইকারি হিসেবে পণ্য ক্রয় করতে পারবেন ও ঘরে বসে ডেলিভারি পাবেন। ক্যাশ অন ডেলিভারিতে পণ্য হাতে পেয়ে টাকা পরিশোধ করারও সুযোগ থাকছে এখানে।

ছামি জানান, তিনি নিজ উদ্যোগে ওয়েবসাইটটি তৈরি করেছেন এবং বিনামূল্যে তিনি এটা ব্যবসায়ীদেরকে ব্যবহারের জন্য প্রদান করতে চান। এজন্য তিনি বঙ্গবাজারের কর্তৃপক্ষের কাছে ওয়েবসাইটটি হস্তান্তর করতে চান এবং ব্যবসায়ীদেরকে এই ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করার জন্য বলতে চান।

ছামির মতে, ব্যবসায়ীদের জন্য এটা এই মুহূর্তে অন্যতম ভালো একটা উপায় হবে ব্যবসায় ফেরার। একই সাথে তারা সময়োপযোগী প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের জন্য একটি উদাহরণ হয়ে থাকবেন।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন