The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪

৭৫ শতাংশ ক্লাস উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করলো ডিআইইউ

ডিআইইউ প্রতিবেদকঃ শিক্ষার্থীদের ক্লাস, প্রেজেন্টেশন এবং শিক্ষার গুনগত মান বৃদ্ধিতে শ্রেণিকক্ষে ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করে নোটিশ জারি করেছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি৷

বুধবার (১১ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে৷

এতে বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীর ক্লাস উপস্থিতির রেকর্ড প্রোগ্রাম অফিসার প্রেরণ করার পর ফাইনাল কোর্সের এডমিট কার্ড ইস্যু করা হবে। ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি প্রাথমিক শর্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য। তবে বিভাগের চেয়ারম্যানের অনুমতিক্রমে ৬০ শতাংশ উপস্থিতিতেও এডমিট কার্ড ইস্যু করা হবে। অসুস্থতা অথবা অন্য গুরুত্বপূর্ণ কারণে ক্লাস করতে না পারলে পরীক্ষা শুরুর তিন দিন আগে অভিভাবকসহ উপযুক্ত প্রমাণাদি সহ আবেদন করতে হবে। ৫০ শতাংশের নিচে উপস্থিত হার হলে ঐ শিক্ষার্থীকে পুনরায় ভর্তি হয়ে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার রফিকুল ইসলাম কথা বলতে রাজি হননি।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. ৭৫ শতাংশ ক্লাস উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করলো ডিআইইউ

৭৫ শতাংশ ক্লাস উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করলো ডিআইইউ

ডিআইইউ প্রতিবেদকঃ শিক্ষার্থীদের ক্লাস, প্রেজেন্টেশন এবং শিক্ষার গুনগত মান বৃদ্ধিতে শ্রেণিকক্ষে ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করে নোটিশ জারি করেছে ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি৷

বুধবার (১১ জানুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে৷

এতে বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীর ক্লাস উপস্থিতির রেকর্ড প্রোগ্রাম অফিসার প্রেরণ করার পর ফাইনাল কোর্সের এডমিট কার্ড ইস্যু করা হবে। ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি প্রাথমিক শর্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য। তবে বিভাগের চেয়ারম্যানের অনুমতিক্রমে ৬০ শতাংশ উপস্থিতিতেও এডমিট কার্ড ইস্যু করা হবে। অসুস্থতা অথবা অন্য গুরুত্বপূর্ণ কারণে ক্লাস করতে না পারলে পরীক্ষা শুরুর তিন দিন আগে অভিভাবকসহ উপযুক্ত প্রমাণাদি সহ আবেদন করতে হবে। ৫০ শতাংশের নিচে উপস্থিত হার হলে ঐ শিক্ষার্থীকে পুনরায় ভর্তি হয়ে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার রফিকুল ইসলাম কথা বলতে রাজি হননি।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন