৪৪তম বিসিএসে আবেদনের সময় বাড়ল, বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানাল পিএসসি

৪৪তম বিসিএস পরীক্ষার অনলাইন আবেদন আগামী ২ মার্চ পর্যন্ত বাড়িয়েছে বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি)। এ সময়ের মধ্যে কারও স্নাতক/ স্নাতকোত্তর পরীক্ষা শেষ হলে তিনিও আবেদনের সুযোগ পাবেন। রবিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) নূর আহমেদ স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৪৪তম বিসিএস পরীক্ষার অনলাইন আবেদনপত্র জমাদানের শেষ তারিখ ৩১ জানুয়ারির পরিবর্তে ২ মার্চ পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে এ বিসিএসে আবেদনকারী প্রার্থীর যোগ্যতায় সংশোধন করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, যদি কোনো প্রার্থী এমন কোনো পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়ে থাকেন যে পরীক্ষায় পাস করলে তিনি ৪৪তম বিসিএসে অংশগ্রহণের যোগ্যতা অর্জন করবেন, যদি তার ওই পরীক্ষার ফলাফল ৪৪তম বিসিএসের আবেদনপত্র জমাদানের শেষ দিন পর্যন্ত প্রকাশ না হয়- তাহলেও তিনি অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। তবে তা সাময়িকভাবে গ্রহণ করা হবে।

ওই আবেদনকারীদের ৪৪তম বিসিএসের আবেদনপত্র গ্রহণের শেষ দিনের মধ্যে স্নাতক পর্যায়ের সব লিখিত পরীক্ষা শেষ হতে হবে। অর্থাৎ আগামী ২ মার্চের মধ্যে যাদের স্নাতক পরীক্ষা শেষ হবে, তারা ৪৪তম বিসিএসে আবেদন করতে পারবেন।

৪৪তম বিসিএসে সবচেয়ে বেশি নিয়োগ হবে শিক্ষা ক্যাডারে। এ ক্যাডারে ৭৭৬ জনকে নিয়োগ দেয়ার কথা রয়েছে।

এছাড়া প্রশাসন ক্যাডারে ২৫০, পুলিশে ৫০, পররাষ্ট্রে ১০, আনসারে ১৪, অর্থ মন্ত্রণালয়ে সহকারী মহাহিসাবরক্ষক (নিরীক্ষা ও হিসাব) পদে ৩০, সহকারী কর কমিশনার পদে ১১, সহকারী নিবন্ধক (সমবায়) পদে ৮ ও সহকারী সুপারিনটেনডেন্ট/ট্রাফিক (রেলওয়ে) নিবন্ধক পদে ৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।