The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪

৪৪তম বিসিএসের আবেদন নিয়ে প্রার্থীদের জিজ্ঞাসা ও উত্তর

প্রশ্ন: আমি বিসিএস আবেদন ফরমে স্নাতক পরীক্ষার রেজাল্ট লিখতে ভুল করেছি। এখন কী করব?

উত্তর: বিসিএস আবেদন ফরম পূরণে কোন ভুল হলে, টাকা জমা না দিয়ে নতুন করে আরেকটা আবেদন করবেন এবং নতুন ইউজার আইডি দিয়ে টাকা পরিশোধ করবেন (পুরাতন আবেদন ৭২ ঘণ্টা পর বাতিল হয়ে যাবে)। আর কোনো ভুল করে টাকা জমা দেওয়া হয়ে গেলে, সেটি গুরুতর ভুল হলে পিএসসিতে আবেদন করে বর্তমান আবেদন ফরম বাতিল করে পুনরায় আবেদন করবেন। সেটি ছোটখাটো ভুল হলে, লিখিত পরীক্ষা পাসের পর সংশোধনের সুযোগ পাবেন। কোনো ভুল হলে দুশ্চিন্তা না করে, পিএসসির হেল্প ডেস্কে যোগাযোগ করুন।

প্রশ্ন: আমি একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরি করি। ৪৪তম বিসিএসের আবেদনে কি চাকরিজীবী উল্লেখ করতেই হবে?

সানজিদা রিতু

উত্তর: ৪৪তম বিসিএস নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির ৬.০ নির্দেশনা অনুযায়ী প্রজাতন্ত্রের কর্মে চাকরিরত প্রার্থীদের নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে আবেদন করতে হবে এবং ৩১.১ নির্দেশনা অনুযায়ী প্রার্থী কোনো তথ্য গোপন করলে তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ছাড়া সুপারিশের পর, নিয়োগের পূর্বে আপনার তথ্যের ভ্যারিফিকেশন করা হবে। তাই সঠিক তথ্য দিয়ে আবেদন করা ভালো।

প্রশ্ন: আমাদের ভাড়া বাসার ঠিকানা স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে জাতীয় পরিচয়পত্রে দেওয়া আছে। কিন্তু ওখানে আমাদের নিজের কোনো জমি নেই। এই স্থায়ী ঠিকানা বিসিএসের আবেদন ফরমে দিলে কি সমস্যা হবে? অথবা আমি নারায়ণগঞ্জ থেকে আমার পড়াশোনা শেষ করেছি। আমার এনআইডি কার্ডও নারায়ণগঞ্জ থেকেই করা হয়েছে। কিন্তু আমাদের হোমটাউন ময়মনসিংহ। এখন বিসিএসে আবেদনের সময় আমার স্থায়ী ও বর্তমান ঠিকানা কোনটা দেব?

আকাশ কুমার সাহা

উত্তর: আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রে ঠিকানা যেটাই থাকুক বা আপনি যেকোনো এলাকার ভোটার হোন বা না কেন, আপনার পূর্বপুরুষ দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছেন বা নিজস্ব ভূমি আছে—এমন ঠিকানা স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে ব্যবহার করবেন। এতে ওই এলাকার বাসিন্দারা আপনাকে সহজেই শনাক্ত করতে পারবেন, ফলে পুলিশ ভ্যারিফিকেশনের সময় সুবিধা হবে।

প্রশ্ন: আমার শারীরিক ওজন ৪২ কেজি। আমি কি আবেদন করতে পারব? অথবা পুলিশ ও আনসার ভিন্ন অন্যান্য ক্যাডারের ক্ষেত্রে পুরুষের ন্যূনতম ওজন ৪৫ কেজি। কোনো পুরুষ প্রার্থী মেধাতালিকায় থেকে শারীরিক ওজনের শর্তটি পূরণ করতে না পারলে তাকে কি নিয়োগ দেওয়া হবে না?

নাজমুল হক

উত্তর: ৪৪তম বিসিএস নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির ২৯.১ নির্দেশনা অনুযায়ী, পুরুষ প্রার্থীকে পুলিশ ও আনসার ক্যাডারে ৫৪.৫৪ কেজি ও অন্যান্য ক্যাডারের জন্য ৪৫ কেজি ওজন (ন্যূনতম) থাকতে হবে। অন্যথায়, মেডিকেল পরীক্ষায় সেই প্রার্থী অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। তবে, যেহেতু মেডিকেল পরীক্ষা নিয়োগের সর্বশেষ ধাপ, আপনি অসুস্থ না হলে, এই সময়ের মধ্যে নির্ধারিত ওজনে যাওয়ার জন্য পর্যাপ্ত সময় পাবেন।

প্রশ্ন: আমার পরীক্ষা শেষ হবে ৩১ জানুয়ারি, ২০২২। কিন্তু এখনো ৩য় বর্ষের একটি সাবজেক্টে অনুত্তীর্ণ আছে। আমি কি বিসিএসে আবেদন করতে পারব? অথবা, অনার্স ২য় বর্ষে ইম্প্রুভমেন্ট এক্সাম আছে, কিন্তু অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা ৩১ জানুয়ারি, ২০২২ তারিখে শেষ হবে। আমি কি ৪৪তম বিসিএসে আবেদন করতে পারব? অথবা আমি অনার্স চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষার্থী। অনার্স তৃতীয় বর্ষে একটি বিষয়ে আমি অনুত্তীর্ণ এবং কন্ডিশনালি প্রোমটেড হই। এখন তৃতীয় বর্ষের আগে চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা হচ্ছে। আমি কি ৪৪তম বিসিএসে অ্যাপিয়ার্ড প্রার্থী হিসেবে আবেদন করতে পারব?

ইমতিয়াজ হোসেন

উত্তর: ৪৪তম বিসিএসের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির ১.৩ নির্দেশনা অনুসারে, কোনো প্রার্থী এমন কোনো পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়ে থাকলে যে পরীক্ষায় পাস করলে তিনি ৪৪তম বিসিএসে আবেদনের যোগ্যতা অর্জন করবেন, তাহলে তার পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের আগপর্যন্ত অবতীর্ণ প্রার্থী হিসেবে আবেদন করতে পারবেন। এই নির্দেশনা অনুসারে ধারণা করা যায়, কোনো প্রার্থীর এক বা একাধিক বিষয়ে অনুত্তীর্ণ আছে, কিন্তু সে পরীক্ষা এখনো অনুষ্ঠিত হয়নি—এমন হলে অবতীর্ণ প্রার্থী হতে পারবে না। তবে মানোন্নয়ন পরীক্ষা থাকলে সেটি গ্রহণযোগ্য হতে পারে।

প্রশ্ন: আমার জাতীয় পরিচয়পত্র ও সার্টিফিকেটে বাবা-মায়ের নাম ঠিক আছে। তবে আমার বাবা-মায়ের জাতীয় পরিচয়পত্রে বাবা এবং মায়ের নাম ভুল আছে। এটা চাকরি ক্ষেত্রে কতটুকু প্রভাব পড়বে?

মমিনুর রহমান

উত্তর: আপনি চূড়ান্ত সুপারিশপ্রাপ্ত হলে নিয়োগের আগে আপনার সব তথ্য, পরিচিতি ও ঠিকানা ভ্যারিফিকেশন করা হবে। এখানে প্রার্থীর বাবা-মায়ের নামের বিষয়টি প্রার্থীর সার্টিফিকেট ও বাবা-মায়ের জাতীয় পরিচয়পত্রের মধ্যে অসামঞ্জস্য দেখা দিলে প্রার্থীর পরিচিতি নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেয়। তাই কোনো কাগজপত্রে ভুল থাকলে সেটি দ্রুত সংশোধন করা ভালো।

প্রশ্ন: আমি একজন কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। আমি কি জেনারেল আর টেকনিক্যাল উভয় ক্যাডারে আবেদন করতে পারব?

শামীমা আক্তার

উত্তর: একজন প্রার্থী সব জেনারেল ক্যাডার এবং তার স্নাতক বিষয়সম্পর্কিত প্রফেশনাল বা টেকনিক্যাল ক্যাডার পছন্দক্রমের তালিকায় রাখতে পারবে। কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতকসম্পন্ন একজন প্রার্থী জেনারেল ক্যাডারের পাশাপাশি কারিগরি শিক্ষা ক্যাডারে আবেদন করতে পারবে, অর্থাৎ আপনি উভয় ক্যাডারে আবেদন করতে পারবেন।

প্রশ্ন: কেউ যদি বিসিএস লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা মিলিয়ে সর্বোচ্চ নম্বর পায়। তাহলে তিনি কি যেকোনো ক্যাডারে নিতে পারবেন? যেমন যদি তার প্রথম পছন্দ পুলিশ ক্যাডার এবং দ্বিতীয় পছন্দ প্রশাসন ক্যাডার হয়, তিনি কি প্রথম চয়েস রেখে দ্বিতীয় চয়েসের ক্যাডারে যোগ দিতে পারবেন?

রাকিবুল হাসান

উত্তর: মেধাতালিকা ও পছন্দের তালিকা অনুসারে একজন প্রার্থীকে বিভিন্ন ক্যাডারে সুপারিশ করা হয়। আপনি সর্বোচ্চ নম্বর পেলে আপনাকে সুপারিশ করার সময় পছন্দক্রমের উপরের ক্যাডার পেয়ে গেলে পরের ক্যাডার পাওয়ার আর সুযোগ নেই। তাই এখন থেকেই আপনার ক্যাডার পছন্দক্রম অনেক চিন্তাভাবনা করে নির্দিষ্ট করা উচিত।

প্রশ্ন: ৩ বছরের ডিগ্রি পাস কোর্স করার পর প্রিলি–মাস্টার্স পাস করলে ৪৪তম বিসিএসে কি আবেদন করা যাবে?

ফারুক শিকদার

উত্তর: বিসিএস আবেদনের শিক্ষাগত যোগ্যতায় এইচএসসি পাসের পর চার বছর মেয়াদী শিক্ষা সমাপনী ডিগ্রির থাকতে হবে বলা আছে। তাই তিন বছর মেয়াদি পাস কোর্স ডিগ্রি সম্পন্ন করা প্রার্থীদের অতিরিক্ত দুই বছর মেয়াদি মাস্টার্স সম্পন্ন করে বিসিএসে আবেদন করতে হবে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.