The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪

২২ ফেব্রুয়ারি থেকে থাকছে না করোনার বিধিনিষেধ

আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে থাকছে না করোনার বিধিনিষেধ। করোনার সংক্রমণ কমে আসায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। আজ রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ের সময়ে এ তথ্য জানান তিনি।

করোনার সংক্রমণ বাড়ায় গত ১৩ জানুয়ারি সরকার ১১ দফা বিধিনিষেধ আরোপ করে। পরে ২১ জানুয়ারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধসহ আরও পাঁচ দফা নির্দেশনা জারি করা হয়। সম্প্রতি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বৈঠকের পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সশরীরে ক্লাস ও পরীক্ষা নিতে পারবে। তবে সব শিক্ষার্থী এই সুযোগ পাবে না। যারা দুই ডোজ টিকা গ্রহণ করেছেন তারাই শুধু সশরীরে ক্লাস করতে পারবে। বাকীদের অনলাইনে ক্লাস করতে হবে। এছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো খুলবে ১ মার্চ থেকে। তবে এখনো প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত হয় নি।

১১ দফা বিধিনিষেধের মধ্যে সরকার মাস্ক পরিধানের ওপর জোর দিয়েছিলো। ঘরের বাইরে মাস্ক পরলে জরিমানার ব্যবস্থা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলছে ট্রেন। গণপরিবহন চলার কথা থাকলেও পরে আলোচনা করে বাস মালিকরা সেটি শিথিল করে নেন। খাবার হোটেলে বসে খেতে হলে টিকা সনদ বাধ্যতামূলক করা হয়েছিলো।

এদিকে সংক্রমণের হার দিন দিন কমেই আসছে। বর্তমানে সংক্রমণের হার ১০ শতাংশের নিচে। করোনার বিধিনিষেধের মধ্যে অর্ধেক জনবলে চলেছে অফিসগুলো। বন্ধ ছিলো আদালত। ভার্চুয়ালি আদালত পরিচালনা করেছেন বিচারক ও আইনজীবীরা।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে থাকছে না করোনার বিধিনিষেধ

২২ ফেব্রুয়ারি থেকে থাকছে না করোনার বিধিনিষেধ

আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে থাকছে না করোনার বিধিনিষেধ। করোনার সংক্রমণ কমে আসায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ তথ্য জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। আজ রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ের সময়ে এ তথ্য জানান তিনি।

করোনার সংক্রমণ বাড়ায় গত ১৩ জানুয়ারি সরকার ১১ দফা বিধিনিষেধ আরোপ করে। পরে ২১ জানুয়ারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধসহ আরও পাঁচ দফা নির্দেশনা জারি করা হয়। সম্প্রতি পরামর্শক কমিটির সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বৈঠকের পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সশরীরে ক্লাস ও পরীক্ষা নিতে পারবে। তবে সব শিক্ষার্থী এই সুযোগ পাবে না। যারা দুই ডোজ টিকা গ্রহণ করেছেন তারাই শুধু সশরীরে ক্লাস করতে পারবে। বাকীদের অনলাইনে ক্লাস করতে হবে। এছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো খুলবে ১ মার্চ থেকে। তবে এখনো প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত হয় নি।

১১ দফা বিধিনিষেধের মধ্যে সরকার মাস্ক পরিধানের ওপর জোর দিয়েছিলো। ঘরের বাইরে মাস্ক পরলে জরিমানার ব্যবস্থা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলছে ট্রেন। গণপরিবহন চলার কথা থাকলেও পরে আলোচনা করে বাস মালিকরা সেটি শিথিল করে নেন। খাবার হোটেলে বসে খেতে হলে টিকা সনদ বাধ্যতামূলক করা হয়েছিলো।

এদিকে সংক্রমণের হার দিন দিন কমেই আসছে। বর্তমানে সংক্রমণের হার ১০ শতাংশের নিচে। করোনার বিধিনিষেধের মধ্যে অর্ধেক জনবলে চলেছে অফিসগুলো। বন্ধ ছিলো আদালত। ভার্চুয়ালি আদালত পরিচালনা করেছেন বিচারক ও আইনজীবীরা।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন