The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বৃহস্পতিবার, ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪

হাফিজ ইতি টানলেন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের

পাকিস্তান ক্রিকেটের অনন্য এক নাম মোহাম্মদ হাফিজ। দীর্ঘ ১৮ বছরের ক্যারিয়ারে নেতৃত্বও দিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেটকে। তবে বয়সের কাছে থমকে যেতে হলো তাকে। লম্বা এই ক্যারিয়ারের ইতি টেনে দিলেন প্রফেসর খ্যাত মোহাম্মদ হাফিজ।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়ার ঘোষণা দিলেও টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলে যাবেন বলে জানিয়েছেন ৪১ বছর বয়সী এই অল-রাউন্ডার।

পাকিস্তানের জার্সিতে হাফিজের অভিষেক জয় ২০০৩ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে। এরপর খেলেছেন ৫৫টি টেস্ট, ২১৮টি ওয়ানডে ও ১১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। তিন ফরম্যাট মিলে রয়েছে ১২ হাজার ৭৮০ রান।

হাফিজ গত ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলে অবসরের যাবার সিদ্ধান্ত নেন। তবে করোনাভাইরাসের কারণে সেটি পিছিয়ে যায় ২০২১ সাল পর্যন্ত। তাই বিশ্বকাপে খেলে আর না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই তারকা অল-রাউন্ডার। তাই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেমি-ফাইনালের ম্যাচটাই হয়ে রইলো ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।

টেস্ট থেকে অবসর নেন ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে। এরপর ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটির পর থেকে আর সুযোগ হয়নি ওয়ানডে খেলার।

হাফিজের নেতৃত্বে ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলে পাকিস্তান। ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও নেতৃত্ব দেন দলকে, তবে গ্রুপ পর্বেই বাদ পড়ে যায় পাকিস্তান। অধিনায়ক হিসেবে হাফিজ ২৯ টি-টোয়েন্টিতে ১৮ ম্যাচ জিতেন, হারেন ১১টি ম্যাচ।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. খেলাধুলা
  3. হাফিজ ইতি টানলেন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের

হাফিজ ইতি টানলেন আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের

পাকিস্তান ক্রিকেটের অনন্য এক নাম মোহাম্মদ হাফিজ। দীর্ঘ ১৮ বছরের ক্যারিয়ারে নেতৃত্বও দিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেটকে। তবে বয়সের কাছে থমকে যেতে হলো তাকে। লম্বা এই ক্যারিয়ারের ইতি টেনে দিলেন প্রফেসর খ্যাত মোহাম্মদ হাফিজ।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়ার ঘোষণা দিলেও টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট খেলে যাবেন বলে জানিয়েছেন ৪১ বছর বয়সী এই অল-রাউন্ডার।

পাকিস্তানের জার্সিতে হাফিজের অভিষেক জয় ২০০৩ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে। এরপর খেলেছেন ৫৫টি টেস্ট, ২১৮টি ওয়ানডে ও ১১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। তিন ফরম্যাট মিলে রয়েছে ১২ হাজার ৭৮০ রান।

হাফিজ গত ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলে অবসরের যাবার সিদ্ধান্ত নেন। তবে করোনাভাইরাসের কারণে সেটি পিছিয়ে যায় ২০২১ সাল পর্যন্ত। তাই বিশ্বকাপে খেলে আর না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই তারকা অল-রাউন্ডার। তাই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেমি-ফাইনালের ম্যাচটাই হয়ে রইলো ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।

টেস্ট থেকে অবসর নেন ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে। এরপর ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটির পর থেকে আর সুযোগ হয়নি ওয়ানডে খেলার।

হাফিজের নেতৃত্বে ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলে পাকিস্তান। ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও নেতৃত্ব দেন দলকে, তবে গ্রুপ পর্বেই বাদ পড়ে যায় পাকিস্তান। অধিনায়ক হিসেবে হাফিজ ২৯ টি-টোয়েন্টিতে ১৮ ম্যাচ জিতেন, হারেন ১১টি ম্যাচ।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন