The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪

স্বপ্নপূরণে ভর্তিচ্ছুদের পাশে জাবি ছাত্রলীগের “জয়বাংলা বাইক সার্ভিস”

আসিফুল ইসলাম, জাবি প্রতিনিধিঃ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০২২-২০২৩ শিক্ষাবর্ষ স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় ভর্তিচ্ছুদের স্বপ্ন পূরণে সহযোগিতা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের জয় বাংলা বাইক সার্ভিস। অনেক ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী পৌঁছাতে দেরি করে ফেলেছে,অনেকে কেন্দ্র চিনতে পারছে না, আবার অনেকে ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র নিয়ে আসেনি। তাদেরকে দ্রুততম সময়ে কেন্দ্রে পৌছে দিচ্ছে জয় বাংলা বাইক সার্ভিস। এতে সন্তুষ্ট ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের চলতি বছরের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয় রবিবার (১৮ জুন) সকাল ৯ টায় ইনস্টিটিউট অব বিজনেস এ্যাডমিনিস্ট্রেশন (আইবিএ-জেইউ)’র পরীক্ষার মাধ্যমে। মোট ৫ দিনব্যাপী চলমান এই ভর্তিযুদ্ধে ১ হাজার ৮৪৪টি আসনের বিপরীতে মোট ২ লাখ ৪৯ হাজার ৮৫৭টি আবেদন জমা পড়েছে। সে হিসাবে এবারের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ১৩৬ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী।

অন্যান্যবারের মতো এবছরও প্রশংসিত হচ্ছে শাখা ছাত্রলীগের জয়বাংলা বাইক সার্ভিস। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক সংলগ্ন প্রাঙ্গনে শাখা ছাত্রলীগের “শেখ রাসেল ভর্তি তথ্য সহায়তা কেন্দ্র” টেন্টের সামনে সংগঠনটির কর্মীরা দেরিতে আসা ভর্তিচ্ছুদেরকে কেন্দ্রে পৌঁছে দিতে অপেক্ষা করছেন। তথ্য সহায়তা কেন্দ্রের সামনে রেখেছেন তাদের বাইকগুলো। এর পাশেই অভিভাবক তাঁবুতে বিশ্রাম নিচ্ছেন ভর্তিচ্ছুদের সঙ্গে আসা অভিভাবকরা। এছাড়া এসময় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে বিনামূল্যে খাবার পানি বিতরণ করতে দেখা গেছে।

এ প্রসঙ্গে যাত্রাবাড়ী থেকে আসা এক ভর্তিচ্ছুর অভিভাবক আবদুল হালিম বলেন, ‘ছেলের ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা চলছে। এই সময়টায় ছাত্রলীগের অভিভাবক তাঁবুতে এসে অবস্থান নিয়েছি। তাদের এই কাজ বেশ প্রশংসার দাবিদার।’

বরিশাল থেকে আসা এক ভর্তিচ্ছুর অভিভাবক বলেন, এখানে সন্তানের ডি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার জন্য এসেছি। বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌঁছাতে একটু দেরি হওয়ায় ছাত্রলীগের টেন্টে আসলে তারা আমার ছেলেকে কেন্দ্রে পৌঁছাতে সহযোগিতা করে। তাদের এই উদ্যোগকে অবশ্যই সাধুবাদ জানাই।

বৃষ্টির মাঝে ভর্তিচ্ছুকে কেন্দ্রে পৌছিঁয়ে দিতে যাওয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের উপ-কৃষি বিষয়ক সম্পাদক সারোয়ার শাকিল বলেন,শিক্ষা, শান্তি, প্রগতির অদম্য সাহসকে বুকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির প্রথম বর্ষ থেকেই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদেরকে “জয় বাংলা” বাইক সার্ভিসের মাধ্যমে নির্দিষ্ট সময়ে সঠিক কেন্দ্রে পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা করে আসছি। এটি আমার কাছে সবচেয়ে প্রশান্তির কাজ মনে হয়। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের দুই অভিভাবক সংগ্রামী সভাপতি আক্তারুজ্জামান সোহেল ভাই এবং বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক মো: হাবিবুর রহমান লিটন ভাইয়ের অনুপ্রেরণায় এবারও ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা করেও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছি। আমার পাশাপাশি অন্যান্য নেতা-কর্মীরাও সার্বিকভাবে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের পাশে আছে।

ভর্তি পরীক্ষায় সংগঠনের বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আকতারুজ্জামান সোহেল বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষার সময় ক্যাম্পাসে সর্বোচ্চ শৃঙ্খলারক্ষা ও সুন্দর পরিবেশ বজায় রাখতে আমরা বদ্ধপরিকর। ভর্তিচ্ছুরা যেন নির্বিঘ্নে পরীক্ষা কেন্দ্রে যেতে পারে এটাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। তাদের তথ্য সহায়তা দিতে ক্যাম্পাসের তিনটি পয়েন্টে আমরা ক্যাম্প স্থাপন করেছি। অভিভাবক কর্নার ও মাতৃদুগ্ধ কর্নারও স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া যে কেউ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা নিশ্চিতে আরও একটি ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।’

সর্বমহলে প্রশংসিত জয় বাংলা বাইক সার্ভিস নিয়ে
শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান লিটন বলেন, ‘অনেক ভর্তিচ্ছু রয়েছে যারা প্রায়ই নানা সমস্যার কারণে কেন্দ্রে পৌঁছাতে দেরি করে। আবার অনেকে আগে আসলেও অপরিচিত জায়গা হওয়ায় কেন্দ্র হারিয়ে ফেলে। তাদের সহায়তা করতে আমরা জয় বাংলা বাইক সার্ভিস চালু করেছি। এর মাধ্যমে ভর্তিচ্ছুদের দ্রুততম সময়ের মধ্যে কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হয়। আমাদের তিনটি সহায়তা কেন্দ্রের সামনে প্রায় চল্লিশ জন স্বেচ্ছাসেবক বাইক সার্ভিস দিচ্ছেন। এই সার্ভিসের সকল ব্যয় ছাত্রলীগকর্মীরা নিজের পকেট থেকে বহন করছে।

এছাড়া, ভর্তিচ্ছুদের আবাসন, স্যালাইন ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা, বিনামূল্যে মাস্ক ও কলম বিতরণ, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের হুইলচেয়ার ও লজিস্টিক সহায়তাসহ বিভিন্ন ব্যাতিক্রধর্মী সেবা দিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ।

উল্লেখ্য, ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা রবিবার (১৮ জুন) থেকে শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২জুন) ডি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে চলতি বছরের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে। ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্য ও ফলাফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সম্পর্কিত ওয়েবসাইট juniv-admission.org এ পাওয়া যাবে।

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.