স্কলারশিপ নিয়ে বিনা খরচে ভারতে পড়ার সুযোগ

বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের প্রতি বছর স্কলারশিপের মাধ্যমে বিনা বেতনে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ করে দেয় ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশনস (আইসিসিআর)। শুধুমাত্র উচ্চশিক্ষা নয় বরং ভারতবর্ষের ঐতিহাসিক ও নানা আকর্ষণীয় স্থান ভ্রমণের সুযোগ পেয়ে থাকে এই স্কলারশিপপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের।

যার ফলে শিক্ষার্থীরা ভারতের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচিত হওয়ার দারুণ সুযোগ পেয়ে থাকেন। এর ফলে দিন দিন বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের কাছে স্কলারশিপের জনপ্রিয়তা বেড়েই চলছে এবং প্রতিবছর বাংলাদেশ থেকে অসংখ্য শিক্ষার্থী এ স্কলারশিপের জন্য আবেদন করে থাকেন।

ভারত সরকার বাংলাদেশের পাশাপাশি ইউরোপ-আমেরিকা-আফ্রিকা-এশিয়ার মোট ৭৩টি দেশের শিক্ষার্থীকে এই স্কলারশিপ দিচ্ছে। বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীরা এই স্কলারশিপ স্কিমের আন্ডারে বছরে একবার স্কলারশিপ পায়। এ পর্যন্ত প্রায় ৪০০০ জন বাংলাদেশী এ স্কলারশিপটি পেয়েছেন।

এই স্কলারশিপের মাধ্যমে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা ভারতের নামকরা সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডি করার সুযোগ পেয়ে থাকেন। তবে শুধু মেডিকেল বিষয়ক সাবজেক্টে স্কলারশিপ দেওয়া হবে না। মেডিকেলের যাবতীয় ডিগ্রি নিজ খরচে করতে হবে। প্রতি বছর ICCR-এর আওতায় মোট ২০০ জন স্কলারকে নির্বাচন করা হয়। এর মধ্যে ১০০টি ইঞ্জিনিয়রিং সাবজেক্টের জন্য আর ১০০টি নন-ইঞ্জিনিয়ারিং সাবজেক্টের জন্য। যেমন- স্নাতক ১৪০টি, স্নাতকোত্তর ৪০টি এবং এমফিল ও পিএইচডি’র জন্য ২০টি।

সুযোগ-সুবিধা

সম্পূর্ণ টিউশন ফ্রি।
হোস্টেল এবং খাবার খরচ।
প্রতি মাসে উপবৃত্তি ১৮ হাজার ভারতীয় রুপি।
যাওয়া-আসার ফ্লাইট ভাড়া।
যোগ্যতাসমূহ

বিগত সকল পরিক্ষায় কমপক্ষে ৬০% মার্ক থাকতে হবে। ভেলিড পার্সপোর্ট ও বিগত সকল পরিক্ষার সার্টিফিকেট থাকতে হবে। পাশাপাশি ইংরেজি ভাষায় অভিজ্ঞ হতে হবে এবং দক্ষতার সনদ সরবরাহ করতে হবে।

পরিক্ষা পদ্ধতি

অনলাইনে ২০০ মার্কের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। যা সরাসরি হাইকমিশনার ডিল করে।

প্রয়োজনীয় নথিপত্র

ছবি।
সকল একাডেমিক মার্কশিট এবং সার্টিফিকেট।
পাসপোর্ট।
এন আই ডি বা জন্ম সনদের ইংরেজি কপি।
ফিজিক্যাল ফিটনেস সার্টিফিকেট।
আবেদন প্রক্রিয়া

আইসিসিআর প্রতিবছর জানুয়ারি থেকে ফেব্রুয়ারির মধ্যে আবেদন গ্রহণ করে থাকে এবং অনলাইনের মাধ্যমেই আবেদন করা যায়।ভারত সরকারের আইসিসিআর পোর্টালে নিজের একাউন্ট খুলে আপনি খুব সহজেই এ আইসিসিআর স্কলারশিপ এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। মনে রাখবেন আইসিসিআর স্কলারশিপটি পাওয়ার জন্য আগের রেজাল্টের চেয়ে পরীক্ষা ও ভাইভা ভালো করা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আবেদন প্রক্রিয়া এবং আইসিসিআর সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।