The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪

সিরাজগঞ্জ শহরের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার দাবিতে “ইকো ভলেন্টিয়ার্সের” স্মারকলিপি প্রদান

সিরাজগঞ্জ শহরে সঠিকভাবে ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন নির্মাণের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার দাবিতে মেয়রকে স্মারক লিপি প্রদান করল ”ইকো ভলেন্টিয়ার্স”।

সোমবার (৯ই জানুয়ারি) সকাল ১১ঘটিকায় সিরাজগঞ্জ সদর পৌরসভার মেয়র জনাব সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তাকে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

সিরাজগঞ্জ সদরসহ আশেপাশের কয়েকটি এলাকায় ময়লা-আবর্জনা যত্র তত্র ফেলা হচ্ছে।সঠিকভাবে ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন না থাকার কারণে ময়লা আবর্জনার স্তূপ শহরের বিভিন্ন জায়গায় দিন দিন বেড়েই চলেছে। যার ফলে সিরাজগঞ্জ শহরের সৌন্দর্যও যেন ম্রিয়মান হয়ে চলেছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সিরাজগঞ্জ সদর পৌরসভার মেয়র বরাবর সঠিকভাবে ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন নির্মাণের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করে ‘ইকো ভলেন্টিয়ার্স’।

স্মারকলিপি প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন ইকো ভলেন্টিয়ার্সের সদস্য অন্তরা ভদ্র, জুলী চৌধুরী ও পূজা রানী শীল। এছাড়াও এসময় উপস্থিত ছিলেন দৈনিক কলম সৈনিক পত্রিকার সহকারী বার্তা সম্পাদক রানা আহমেদ।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, শহরের প্রবেশদ্বারে অবস্থিত বাজার স্টেশন এলাকায় ময়লা ফেলার অবস্থা অত্যন্ত করুণ। পঁচা দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা ফেলার কারণে সেখানে দুর্গন্ধসহ পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। পথচারীদের রাস্তার পাশে ময়লা থাকার কারণে যাতায়াতে বিঘ্ন ঘটছে।

ইকো ভলেন্টিয়ার্স সদস্যরা বলেন, আমরা সিরাজগঞ্জ জেলার মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় স্থাপিত ডাস্টবিনের ব্যবহার পরিদর্শন করেছি। শহরের মধ্যে ময়লা ফেলার নির্ধারিত জায়গা ও পর্যাপ্ত ডাস্টবিনের অভাবে যেখানে সেখানে ময়লার স্তুপ জমা হয়েছে। শহরের ভিতরে পুরাতন আমলের ডাস্টবিন ও কিছু কিছু জায়গায় ডাস্টবিনের ধারণ ক্ষমতা কম থাকার কারণে কিছু ময়লা সেখানে এবং বেশিরভাগ ময়লা আশেপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে।

এমতাবস্থায় সেখানে ডাস্টবিন সঠিকভাবে পরিচর্যার অভাবে মারাত্মক অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। যদি প্রত্যেক এলাকায় নির্দিষ্ট ডাস্টবিনের ব্যবস্থা থাকে তবে এভাবে ময়লার স্তূপ তৈরি হবে না। তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান ইকো ভলেন্টিয়ার্সের মেম্বারগণ।

এবিষয়ে পৌর মেয়র যত দ্রুত সম্ভব ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার আশ্বাস দেন।

ইকো ভলেন্টিয়ার্স একটি পরিবেশবাদী সংগঠন। যারা পরিবেশের উন্নয়ন, পরিবেশ রক্ষণ ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড করে থাকে। দেশের বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই সংগঠনে কাজ করছে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. জাতীয়
  3. সিরাজগঞ্জ শহরের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার দাবিতে “ইকো ভলেন্টিয়ার্সের” স্মারকলিপি প্রদান

সিরাজগঞ্জ শহরের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার দাবিতে “ইকো ভলেন্টিয়ার্সের” স্মারকলিপি প্রদান

সিরাজগঞ্জ শহরে সঠিকভাবে ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন নির্মাণের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার দাবিতে মেয়রকে স্মারক লিপি প্রদান করল ''ইকো ভলেন্টিয়ার্স''।

সোমবার (৯ই জানুয়ারি) সকাল ১১ঘটিকায় সিরাজগঞ্জ সদর পৌরসভার মেয়র জনাব সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তাকে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

সিরাজগঞ্জ সদরসহ আশেপাশের কয়েকটি এলাকায় ময়লা-আবর্জনা যত্র তত্র ফেলা হচ্ছে।সঠিকভাবে ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন না থাকার কারণে ময়লা আবর্জনার স্তূপ শহরের বিভিন্ন জায়গায় দিন দিন বেড়েই চলেছে। যার ফলে সিরাজগঞ্জ শহরের সৌন্দর্যও যেন ম্রিয়মান হয়ে চলেছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সিরাজগঞ্জ সদর পৌরসভার মেয়র বরাবর সঠিকভাবে ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন নির্মাণের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করে 'ইকো ভলেন্টিয়ার্স'।

স্মারকলিপি প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন ইকো ভলেন্টিয়ার্সের সদস্য অন্তরা ভদ্র, জুলী চৌধুরী ও পূজা রানী শীল। এছাড়াও এসময় উপস্থিত ছিলেন দৈনিক কলম সৈনিক পত্রিকার সহকারী বার্তা সম্পাদক রানা আহমেদ।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, শহরের প্রবেশদ্বারে অবস্থিত বাজার স্টেশন এলাকায় ময়লা ফেলার অবস্থা অত্যন্ত করুণ। পঁচা দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা ফেলার কারণে সেখানে দুর্গন্ধসহ পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। পথচারীদের রাস্তার পাশে ময়লা থাকার কারণে যাতায়াতে বিঘ্ন ঘটছে।

ইকো ভলেন্টিয়ার্স সদস্যরা বলেন, আমরা সিরাজগঞ্জ জেলার মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় স্থাপিত ডাস্টবিনের ব্যবহার পরিদর্শন করেছি। শহরের মধ্যে ময়লা ফেলার নির্ধারিত জায়গা ও পর্যাপ্ত ডাস্টবিনের অভাবে যেখানে সেখানে ময়লার স্তুপ জমা হয়েছে। শহরের ভিতরে পুরাতন আমলের ডাস্টবিন ও কিছু কিছু জায়গায় ডাস্টবিনের ধারণ ক্ষমতা কম থাকার কারণে কিছু ময়লা সেখানে এবং বেশিরভাগ ময়লা আশেপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে।

এমতাবস্থায় সেখানে ডাস্টবিন সঠিকভাবে পরিচর্যার অভাবে মারাত্মক অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। যদি প্রত্যেক এলাকায় নির্দিষ্ট ডাস্টবিনের ব্যবস্থা থাকে তবে এভাবে ময়লার স্তূপ তৈরি হবে না। তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানান ইকো ভলেন্টিয়ার্সের মেম্বারগণ।

এবিষয়ে পৌর মেয়র যত দ্রুত সম্ভব ডাস্টবিন পরিচর্যা ও নতুন ডাস্টবিন নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার আশ্বাস দেন।

ইকো ভলেন্টিয়ার্স একটি পরিবেশবাদী সংগঠন। যারা পরিবেশের উন্নয়ন, পরিবেশ রক্ষণ ও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড করে থাকে। দেশের বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এই সংগঠনে কাজ করছে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন