The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪

সাভারে স্কুলে ভর্তির দাবিতে সড়ক অবরোধ

সাভারে ভর্তি হতে না পেরে দ্বিতীয় দিনের মতো স্কুলের প্রধান গেটের সামনে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থী ও অভিবাবকরা। ভর্তির দাবিতে স্কুলটির সামনের সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা ও অভিভাবকরা।

মঙ্গলবার বেলা ১১ টার সময় সাভার অধরচন্দ্র স্কুলের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে সড়কটি অবরোধ করে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

শিক্ষার্থীরা জানায়, বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শাখার প্রধান শিক্ষক রোকেয়া হক আশ্বাস দিয়েছিলেন লটারি হলেও প্রাথমিক শাখার সব শিক্ষার্থী মাধ্যমিক শাখায় ভর্তির সুযোগ পাবে। কিন্তু আমরা প্রায় ৭০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পাচ্ছি না। আমাদের বিভিন্ন মহল থেকে আশ্বাস দেয়া হয়েছিলো। গতকাল সোমবার পর্যন্ত আমাদের অপেক্ষায় রাখা হয়েছিলো। এখনও পর্যন্ত আমরা এই বিষয়ে নিশ্চিত কোনো সিদ্ধান্ত পাইনি।

এ বিষয়ে একজন অভিভাবকের সঙ্গে কথা বললে তিনি প্রতিবেদককে বলেন, দীর্ঘদিন এই প্রতিষ্ঠানে আমাদের সন্তানেরা পড়াশোনা করছে। এবং স্কুল থেকে বলা হয়েছিলো সর্বাধিক সুযোগ দেয়া হবে এইসব শিক্ষার্থীদের। হঠাৎ করে কেন বা কি কারনে তারা তাদের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছে আমরা এখনও জানিনা। বিভিন্নভাবে আমাদেরকে আশ্বাস দিলেও সেই প্রতিশ্রুতি এখনও পালন করছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। আমরা আমাদের সন্তানদের এখন কোথায় নিয়ে যাব তা ভেবে পাচ্ছিনা।

অধরচন্দ্র সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রতন পিটার গোমেজ বলেন, সরকারি প্রক্রিয়ায় স্কুলে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। বর্তমানে নতুন করে ভর্তির কোনো সুযোগ নেই। যারা রাস্তায় নেমেছে তারা মূলত লটারি মানতে পারছেন না।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. সাভারে স্কুলে ভর্তির দাবিতে সড়ক অবরোধ

সাভারে স্কুলে ভর্তির দাবিতে সড়ক অবরোধ

সাভারে ভর্তি হতে না পেরে দ্বিতীয় দিনের মতো স্কুলের প্রধান গেটের সামনে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থী ও অভিবাবকরা। ভর্তির দাবিতে স্কুলটির সামনের সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করছে শিক্ষার্থীরা ও অভিভাবকরা।

মঙ্গলবার বেলা ১১ টার সময় সাভার অধরচন্দ্র স্কুলের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে সড়কটি অবরোধ করে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

শিক্ষার্থীরা জানায়, বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শাখার প্রধান শিক্ষক রোকেয়া হক আশ্বাস দিয়েছিলেন লটারি হলেও প্রাথমিক শাখার সব শিক্ষার্থী মাধ্যমিক শাখায় ভর্তির সুযোগ পাবে। কিন্তু আমরা প্রায় ৭০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পাচ্ছি না। আমাদের বিভিন্ন মহল থেকে আশ্বাস দেয়া হয়েছিলো। গতকাল সোমবার পর্যন্ত আমাদের অপেক্ষায় রাখা হয়েছিলো। এখনও পর্যন্ত আমরা এই বিষয়ে নিশ্চিত কোনো সিদ্ধান্ত পাইনি।

এ বিষয়ে একজন অভিভাবকের সঙ্গে কথা বললে তিনি প্রতিবেদককে বলেন, দীর্ঘদিন এই প্রতিষ্ঠানে আমাদের সন্তানেরা পড়াশোনা করছে। এবং স্কুল থেকে বলা হয়েছিলো সর্বাধিক সুযোগ দেয়া হবে এইসব শিক্ষার্থীদের। হঠাৎ করে কেন বা কি কারনে তারা তাদের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছে আমরা এখনও জানিনা। বিভিন্নভাবে আমাদেরকে আশ্বাস দিলেও সেই প্রতিশ্রুতি এখনও পালন করছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। আমরা আমাদের সন্তানদের এখন কোথায় নিয়ে যাব তা ভেবে পাচ্ছিনা।

অধরচন্দ্র সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রতন পিটার গোমেজ বলেন, সরকারি প্রক্রিয়ায় স্কুলে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। বর্তমানে নতুন করে ভর্তির কোনো সুযোগ নেই। যারা রাস্তায় নেমেছে তারা মূলত লটারি মানতে পারছেন না।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন