সাত কলেজের ভর্তিচ্ছুদের সরিয়ে দিয়েছে পুলিশ

জনদুর্ভোগে এড়াতে সাত কলেজের ফাঁকা আসন পূরণের দাবিতে নীলক্ষেতে অবরোধ করা শিক্ষার্থীদের সরিয়ে দিয়েছে পুলিশ। আজ বুধবার (২ মার্চ) দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে নিউমার্কেট থানা পুলিশের নেতৃত্বে শিক্ষার্থীদের নীলক্ষেত মোড় থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

পুলিশ জানায়, শিক্ষার্থীদের হঠাৎ অবরোধের ফলে মূল সড়কে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ব্যাপক জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছিল। ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ। তাই ভোগান্তি এড়াতেই শিক্ষার্থীদেরও অনুরোধ করে সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

নিউমার্কেট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সাহেব আলী বলেন, জনদুর্ভোগে এড়াতেই শিক্ষার্থীদের অনুরোধ করে সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হঠাৎ অবরোধের কারণে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ব্যাপক ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছিল। আমরা শিক্ষার্থীদের দাবি গুলো শুনেছি। পরবর্তীতে নির্ধারিত সময়ের পর সড়ক থেকে সরিয়ে দিয়েছি।

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের ফাঁকা আসন পূরণের দাবিতে নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নিয়ে অবরোধ করেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, সাত কলেজের প্রায় তিন হাজার আসন ফাঁকা থাকলেও ভর্তি স্থগিত রাখা হয়েছে। বিষয় মনোনয়নের সময় সাত কলেজের আসন সংখ্যা ২৬ হাজার ১৬০টি বলা হলেও চূড়ান্ত মনোনয়নের পর বলা হচ্ছে আসন সংখ্যা ২৩ হাজার ২৬২টি। যা কোনো ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।

তারা আরও বলেন, ফাঁকা আসন পূরণসহ দুই দফা দাবিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি আমরা শাহবাগে সমাবেশ করেছি। এরপরও কর্তৃপক্ষ আমাদের দাবির বিষয়ে কোনো কর্ণপাত করেনি। অথচ অনেক শিক্ষার্থী সাত কলেজে অপেক্ষমাণ থাকায় অন্য কোথাও ভর্তি হয়নি।

এই অবস্থায় দ্রুত সময়ের মধ্যে সাত কলেজের সবগুলো আসনে শিক্ষার্থী ভর্তিসহ দুই দফা দাবি আদায়ে নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তারা।