The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বৃহস্পতিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২৪

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে সর্বজনীন পেনশন স্কিমে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে এবং এ প্রজ্ঞাপন বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করেছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।

রোববার সকাল ১১:৩০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন-৩ এর সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের শিক্ষকগণ অংশগ্রহণ করেন। এ সময় তাঁরা সর্বজনীন পেনশন স্কিমকে বৈষম্যমূলক আখ্যা দিয়ে তা বাতিলের পাশাপাশি স্বতন্ত্র বেতনকাঠামো বাস্তবায়নের দাবি জানান। দাবি আদায়ে কাজ থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি প্রয়োজনে রাস্তায় নেমে আন্দোলন করারও হুঁশিয়ারি দেন তাঁরা।

মানববন্ধনে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো: ফখরুল ইসলাম বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু হলে মেধাবীরা শিক্ষকতা পেশায় আগ্রহ হারাবেন। এখানে শিক্ষকেরা পদোন্নতি পান নতুন একটি নিয়োগের মাধ্যমে। ফলে দেখা যাবে, পদোন্নতি পাওয়ার পর বর্তমান শিক্ষকেরাও সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় পড়বেন। তাই অনতিবিলম্বে এই বৈষম্যমূলক স্কিমের আওতা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মুক্ত রাখতে হবে।

শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি ড. মোহাম্মদ তানভীর আহমেদ বলেন, এটি দেশকে মেধাশূন্য করার একটি প্রচেষ্টা। এ প্রজ্ঞাপন বাস্তবায়িত হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা চরম বৈষম্যের শিকার হবেন। শিক্ষকদের সুযোগ না দিলে দেশ মেধাশূন্য হওয়ার পথে এগুবে।

সাধারণ সম্পাদক মো: রিফাত-উর-রহমান বলেন, এই স্কিম পরিপূর্ণ সর্বজনীন নয়। এ রকম প্রহসনের স্কিম আমরা মানি না। আমরা আগামী ৩০ জুনের মধ্যে সরকারকে এই বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আহবান জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, ২৮ মে সকাল দশটা থেকে বারোটা পর্যন্ত কর্মবিরতি, এবং ৪ জুন অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করবেন বাংলাদেশের সমস্ত পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.