The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪

রূপপুরের যন্ত্রপাতি নিয়ে মোংলা বন্দরে রুশ জাহাজ

নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের যন্ত্রপাতি নি‌য়ে বাগেরহাটের মোংলা বন্দরে ভিড়েছে রুশ পতাকাবাহী জাহাজ ‘এম ভি ইয়ামাল ওরল্যান’। এর আগে ২৮ মার্চ রাশিয়ার নোভরোসিস্ক বন্দর থেকে যন্ত্রপাতি নিয়ে মোংলার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে জাহাজটি।

মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) দুপুর ২টায় বন্দরের ৮ নম্বর জেটিতে দুই হাজার ৫২২ মেট্রিক টন যন্ত্রপাতি নিয়ে জাহাজটি নোঙর করে।

জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট কনভেয়ার শিপিং এজেন্টের খুলনার ব্যবস্থাপক (অপারেশন) সাধন কুমার চক্রবর্তী বলেন, জাহাজের পণ্য খালাস শুরু হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে এসব পণ্য সড়কপথে রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্রের কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মীর এরশাদ আলী বলেন, দেশে নির্মাণাধীন প্রায় সব মেগা প্রকল্পের মালামাল বিশেষ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মোংলা বন্দর দিয়ে খালাস হচ্ছে। দ্রুত সময়ে আধুনিক পদ্ধতিতে দক্ষ জনবল দিয়ে এসব পণ্য খালাস হচ্ছে। আধুনিক সুযোগ সুবিধা ও বন্দর কর্তৃপক্ষের আন্তরিকতায় এই বন্দর ব্যবহারে আগ্রহী হচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. অর্থ ও বাণিজ্য
  3. রূপপুরের যন্ত্রপাতি নিয়ে মোংলা বন্দরে রুশ জাহাজ

রূপপুরের যন্ত্রপাতি নিয়ে মোংলা বন্দরে রুশ জাহাজ

নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের যন্ত্রপাতি নি‌য়ে বাগেরহাটের মোংলা বন্দরে ভিড়েছে রুশ পতাকাবাহী জাহাজ ‘এম ভি ইয়ামাল ওরল্যান’। এর আগে ২৮ মার্চ রাশিয়ার নোভরোসিস্ক বন্দর থেকে যন্ত্রপাতি নিয়ে মোংলার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে জাহাজটি।

মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) দুপুর ২টায় বন্দরের ৮ নম্বর জেটিতে দুই হাজার ৫২২ মেট্রিক টন যন্ত্রপাতি নিয়ে জাহাজটি নোঙর করে।

জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট কনভেয়ার শিপিং এজেন্টের খুলনার ব্যবস্থাপক (অপারেশন) সাধন কুমার চক্রবর্তী বলেন, জাহাজের পণ্য খালাস শুরু হয়েছে। তিন দিনের মধ্যে এসব পণ্য সড়কপথে রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্রের কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মীর এরশাদ আলী বলেন, দেশে নির্মাণাধীন প্রায় সব মেগা প্রকল্পের মালামাল বিশেষ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মোংলা বন্দর দিয়ে খালাস হচ্ছে। দ্রুত সময়ে আধুনিক পদ্ধতিতে দক্ষ জনবল দিয়ে এসব পণ্য খালাস হচ্ছে। আধুনিক সুযোগ সুবিধা ও বন্দর কর্তৃপক্ষের আন্তরিকতায় এই বন্দর ব্যবহারে আগ্রহী হচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন