The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪

রাবি ইন্টারন্যাশনাল ডরমেটরি যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষার্থীর বেপরোয়া আচরণ বহিষ্কারের দাবি

যুক্তরাষ্ট্র থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা করতে আসা শিক্ষার্থী ডোমেন জোসেফের বেপরোয়া আচরণে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে শহিদ মীর আব্দুল কাইয়ূম ইন্টারন্যাশনাল ডরমেটরির শিক্ষার্থীরা। তার বিরুদ্ধে ডরমেটরির ওয়ার্ডেনকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে।

গবেষকরা তার আবাসিক সুবিধা বাতিল ও বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযুক্ত জোসেফ রাবির ফোকলোর বিভাগের পিএইচডি ফেলো। তিনি ডরমেটরির ৩০৫ নম্বর কক্ষের আবাসিক শিক্ষার্থী। ডরমেটরির শিক্ষার্থীরা জানান, জোসেফ সবার সঙ্গে উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করছেন। মানসিক বিকারগ্রস্তদের মতো তার আচরণ। যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটাতে পারেন তিনি। তার বেপরোয়া আচরণে ডরমেটরির গবেষকরা ভীত ও শঙ্কায় রয়েছেন। ব্যক্তিগত ঘটনা থেকে বিষয়টি আন্তর্জাতিক রূপ নিতে পারে বলেও আশঙ্কা তাদের।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২৭ ফেব্রুয়ারি গবেষক ডোমেন জোসেফ অপর গবেষক তাপস কুমার রায়ের সঙ্গে মারমুখী আচরণ করেন। তার কক্ষ তছনছ করেন। ডরমেটরিতে অবস্থানরত গবেষকদের সঙ্গে তিনি উদ্ভট আচরণ করেই যাচ্ছেন।

নিয়মের ধার ধারেন না জোসেফ। তার বেপরোয়া আচরণের বিচার চেয়ে ১৪ গবেষক প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। গত বছরের ১২ সেপ্টেম্বর ডরমেটরির উপরেজিস্ট্রারের সঙ্গেও অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন জোসেফ। এরপর ডরমেটরির ওয়ার্ডেনের কক্ষে ঢুকে তাকে অকথ্য ভাষায় গালগাল ও প্রাণনাশের হুমকি দেন। এ ঘটনায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর দপ্তর থেকে তলব করা হয়।

সেখানে জোসেফকে সতর্ক করা হয়। এতে তার কোনো পরিবর্তন লক্ষ করা যায়নি, বরং তার উগ্র আচরণ দিনদিন বাড়ছে। অভিযোগের বিষয়ে জোসেফ বলেন, ভুল বোঝাবুঝি থেকে এমনটা হয়েছে। ভবিষ্যতে আর হবে না। ডরমেটরির ওয়ার্ডেন প্রফেসর ড. আশাদুল ইসলাম যুগান্তরকে জানান, জোসেফ যা করছে, তা একজন গবেষকের কাছ থেকে অপ্রত্যাশিত। অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাবি উপাচার্য গোলাম সাব্বির সাত্তার।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.