রাবির ‘এ’ ইউনিটে সাবজেক্ট চয়েস ফরম পূরণ আজ থেকে

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় ‘এ’ ইউনিটে সাবজেক্ট চয়েস ফরম পূরণ শুরু হচ্ছে আজ শুক্রবার (১৯ আগস্ট)। ইতিমধ্যে প্রয়োজনীয় নির্দেশাবলি প্রকাশিত হয়েছে। গত বুধবার (১৭ আগস্ট) রাতে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ও ‘এ’ ইউনিটের সমন্বয়ক অধ্যাপক ইলিয়াস হোসেনের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ‘এ’ ইউনিটের অন্তর্গত বিভিন্ন বিভাগের লিখিত ও ব্যবহারিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থী এবং গত ২৬ জুলাই ‘এ’ ইউনিটের বহুনির্বাচনি প্রশ্নে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অনলাইনে সাবজেক্ট চয়েস ফরম আগামী ১৯ আগস্ট থেকে ২৩ আগস্টের মধ্যে বাধ্যতামূলকভাবে পূরণ করতে হবে।

তা ছাড়া ‘এ’ ইউনিটে ভর্তির সুযোগ থাকবে না। এমনকি পছন্দক্রম প্রদানের পর তদানুযায়ী কোনও নির্দিষ্ট বিভাগে ভর্তির জন্য নির্বাচিত হলে, সে বিভাগে অবশ্যই ভর্তি হতে হবে। নতুবা ‘এ’ ইউনিটে তার প্রার্থীতা বাতিল বলে গণ্য হবে এবং পরবর্তীতে ‘এ’ ইউনিটের কোন বিভাগে ভর্তির কোনও ধরনের সুযোগ থাকবে না।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ রয়েছে, আগামী ২৫ আগস্ট বিভাগসমূহের নির্ধারিত আসন সংখ্যা অনুযায়ী ভর্তির জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হবে। ১-৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে (শুক্রবার ও শনিবার ব্যতীত) মেধা তালিকাভূক্ত পরীক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে।

পরবর্তীতে আসন শূন্য হওয়া সাপেক্ষে শুধুমাত্র ভর্তি হওয়া প্রার্থীদের সাবজেক্ট চয়েসের ক্রমানুসারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিভাগ পরিবর্তন করা হবে এবং তা নোটিশের মাধ্যমে জানানো হবে। সেক্ষেত্রে কোন প্রার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে হবে না

স্বাক্ষাৎকারের নির্দেশনায় উল্লেখ রয়েছে, ভর্তি প্রক্রিয়ার শুরুতেই নির্বাচিত প্রার্থীদের স্বাক্ষাৎকার স্ব-স্ব অনুষদ অফিসে অনুষ্ঠিত হবে। সাক্ষাৎকারের সময় প্রার্থীকে ভর্তি পরীক্ষার কক্ষে পরিদর্শক কর্তৃক স্বাক্ষরিত প্রবেশপত্র, সাবজেক্ট চয়েস ফরম- এর প্রিন্ট কপি, এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার মূল মার্কশীট ও এইচএসসি মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে।

উল্লেখ্য, অনলাইনে পছন্দক্রম পূরণ সংক্রান্ত কারিগরি সমস্যার ক্ষেত্রে হেল্পলাইন ০১৭০৩-৮৯৯৯৭৩ -এ যোগাযোগ করতে পারবে। প্রকাশিত ফলাফলে কোন ভুল-ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে, তা সংশোধন/বাতিল করার ক্ষমতা কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে। তা ছাড়া ভর্তি সংক্রান্ত সব তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (www.ru.ac.bd/admission) পাওয়া যাবে।