রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ পাচ্ছে না ২০১৭ সালের পরীক্ষার্থীরা

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭ সালে এসএসসি পাসকৃতরা ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছেন না। ২০১৮ এবং ২০১৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাই পরীক্ষার সুযোগ পাবেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিত ভর্তি কমিটির সভায় করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় কেবলমাত্র ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় দ্বিতীয়বার পরীক্ষার সুযোগ রাখার সিদ্ধান্ত হয়। এ বছর ভর্তি পরীক্ষা তিনটি ইউনিটে (এ, বি ও সি) অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি ইউনিটে চার শিফটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবেন ৭২ হাজার পরীক্ষার্থী। ​২০১৮-১৯ সালে এসএসসি এবং ২০২০-২১ সালে এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা পরীক্ষার সুযোগ পাবেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে রাবি উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির বলেন, আমাদের ভর্তি কমিটির সভায় এসএসসি এবং এইচএসসি’র ‘ইমিডিয়েট’ ব্যাচকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সে হিসেবে ২০১৭ সালে এসএসসি পাসকৃতরা পরীক্ষার সুযোগ পাচ্ছে না।

তিনি আরও বলেন, ভর্তি ফি, আবেদনের যোগ্যতাসহ যাবতীয় বিষয় শিগগিরই বিজ্ঞপ্তি আকারে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮ সালে ‘সেকেন্ড টাইম’ ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ বন্ধ করা হয়। তবে করোনার কারণে শিক্ষার্থীদের ক্ষতি বিবেচনায় চলতি বছর সেকেন্ড টাইম ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ রাখার আহবান জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বিষয়টি নিয়ে সব বিশ্ববিদ্যালয়কে চিঠি পাঠায় ইউজিসি। এর প্রেক্ষিতে এবার শিক্ষার্থীদের দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ দিচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।