The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ১৩ই জুলাই, ২০২৪

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১২ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ১২জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে অধ্যাপক এ.বি.এম. হোসেন ও অধ্যাপক শাহানারা হোসেন বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। ২০২০ সালের স্নাতক (সম্মান) পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে তাদের এই বৃত্তি দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদ তাজউদ্দীন আহমদ সিনেট ভবনে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের এ বৃত্তি দেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি এবং ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের মেধাবী শিক্ষার্থীদের এ বৃত্তি প্রদান করা হয়। বৃত্তি প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মরহুম ইমেরিটাস অধ্যাপক এ.বি.এম. হোসেন ও ইতিহাস বিভাগের মরহুম অধ্যাপক শাহানারা হোসেনের পুত্র ড. মুঈন মাহমুদ হোসেন।

বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী সুমাইয়া সুলতানা, সানজিদা নওরীন ও কানিজ ফাতেমা, ইতিহাস বিভাগের মোসা. আদিলা আক্তার নীপা, বাদশা রহমান ও নিগার সুলতানা, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মো. নূর হোসেন, তামজিদা সুলতানা ও আহসান উল্লাহ এবং ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের ফেরদৌসী আক্তার, চয়ন কুমার মণ্ডল ও মো. আশরাফুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে রেজিস্ট্রার অধ্যাপক মো. আবদুস সালামের সঞ্চালনায় ড. মুঈন মাহমুদ হোসেন বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে মরহুম ইমেরিটাস অধ্যাপক এ.বি.এম. হোসেন ও অধ্যাপক শাহানারা হোসেনের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় অনুপ্রাণিত করা এই বৃত্তির অন্যতম উদ্দেশ্যে। মেধাবী শিক্ষার্থীদের অনুপ্রাণিত করার এই উদ্যোগ অন্যান্য শিক্ষাহিতৈষী ব্যক্তিবর্গ ও প্রতিষ্ঠানকেও মেধা লালনে এগিয়ে আসতে উৎসাহিত করবে বলে আমি মনে করি।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্যদ্বয় অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম ও অধ্যাপক মো. হুমায়ুন কবীর, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. অবায়দুর রহমান প্রামানিক, কলা অনুষদের অধিকর্তা অধ্যাপক মো. ফজলুল হক, অর্থনীতি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মো. আব্দুল ওয়াদুদ, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান, ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ইউনুস আহমদ খান প্রমুখ। এছাড়া অর্থনীতি, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি এবং ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.