যত দিনে শেষ হবে এসএসসির সময়সূচি প্রস্তুত করে মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে বোর্ড

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে সারাদেশে চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। তার আগে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার সময়সূচি প্রস্তুত করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড। এই সময়সূচি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলে তা প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড জানিয়েছে, সময়সূচিতে ১৫ থেকে ১৮ দিনের মধ্যে পরীক্ষা সম্পন্ন করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে ১ বা ২ অক্টোবর লিখিত পরীক্ষা শেষ করার প্রস্তাব করা হয়। পরীক্ষাগুলো সকাল ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

বোর্ডের কর্মকর্তারা বলছেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসারে গ্যাপ কমিয়ে স্বল্প সময়ে পরীক্ষা শেষ করতে সূচি তৈরি করা হয়েছে। এখন মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলেই চূড়ান্ত হবে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এস এম আমিরুল ইসলাম বলেন, আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু করতে প্রস্তাবিত রুটিন তৈরি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদন দেওয়া হলে তা প্রকাশ করা হবে।

তিনি বলেন, সরকারি ছুটি ও শুক্রবার ছাড়া টানা ১৫ থেকে ১৮ দিনের মধ্যে তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ করা হবে। এরপর ব্যবহারিক পরীক্ষা শুরু হবে। পরীক্ষা শুরুর দুই সপ্তাহ আগে সংশোধিত সময়সূচি প্রকাশ করা হবে।

সাধারণত ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে এসএসসি এবং এপ্রিলের শুরুতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হতো। তবে এ বছর করোনার কারণে প্রথম দফা এবং বন্যার কারণে দ্বিতীয় দফা এই দুই পাবলিক পরীক্ষা পিছিয়ে যায়। গত ১৯ জুন থেকে এসএসসি শুরু হওয়ার কথা ছিল।

এসএসসি পরীক্ষা মধ্য সেপ্টেম্বরে এবং এইএসসি পরীক্ষা নভেম্বরের শুরুতে নেওয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

১৭ জুলাই এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগস্টের মাঝামাঝি একটা বড় বন্যার আশঙ্কা রয়েছে। দক্ষিণাঞ্চলে বন্যার একটা শঙ্কা দেখা দিয়েছে। সে কারণে আমরা আগস্ট বাদ দিয়ে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি এসএসসি পরীক্ষা শুরু করতে যাচ্ছি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দুই মাস পিছিয়ে যাওয়ায় পরীক্ষার সময়সূচিতে গ্যাপ কমানোর ক্ষেত্রে পরিবর্তন আসবে। যতটুকু কম সময়ের মধ্যে পরীক্ষা নেওয়া যায় আমরা সেই চেষ্টা করবো। তবে শিক্ষার্থীদের যেন কষ্ট না হয় সেদিকে খেয়াল রাখবো।

পরীক্ষার সিলেবাসের কোনো পরিবর্তন আসছে কিনা- প্রশ্নে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ১৯ জুন যেভাবে হওয়ার কথা ছিল সেই সিলেবাসেই পরীক্ষা নেওয়া হবে।