মেয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য মাধ্যমিকের স্কুল খুলছে আফগানিস্তানে

আফগানিস্তানে আগামী সপ্তাহ থেকে মেয়ে শিক্ষার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে মাধ্যমিকের স্কুল। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) শিক্ষার্থীদের স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন দেশটির এক শিক্ষা কর্মকর্তা।

দেশটির শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আজিজ আহমেদ রায়ান জানিয়েছেন, সব ছেলেমেয়ের জন্য সবগুলো স্কুল খুলে দেওয়া হচ্ছে। তবে মেয়েদের ক্ষেত্রে কিছু শর্ত আছে বলেও জানান তিনি। মেয়েদের আলাদাভাবে পড়ানো হবে এবং নারী শিক্ষকরাই তাদের পড়াবেন।

তবে প্রান্তিক এলাকাগুলোতে যেখানে নারী শিক্ষকের ঘাটতি আছে, সেখানে বয়স্ক পুরুষ শিক্ষকদেরকে পড়ানোর অনুমতি দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এই কর্মকর্তা আরও বলেন, চলতি বছর থেকে আর কোনো স্কুল বন্ধ থাকবে না। যদি কোনো স্কুল বন্ধ থাকে তাহলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব হচ্ছে সেটি চালু করা।

২০২১ সালের ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখলে নেয় তালেবান। এরপর ৩১ আগস্ট টানা ২০ বছরের যুদ্ধের অবসান ঘটিয়ে শেষ পর্যন্ত দেশটি থেকে সব সেনা প্রত্যাহার করে নেয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্ররা। এরপর দেশের শাসনভার তুলে নেয় তালেবান।

তালেবানের আগের শাসনকালে সরকার পরিচালনার ক্ষেত্রে যে অভিযোগগুলো ছিল তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে নারীর অধিকার ক্ষুন্ন এবং প্রকাশ্যে বিচার ব্যবস্থা। এবার ক্ষমতা নেওয়ার পরও একই ব্যবস্থার ইঙ্গিত পাওয়া গেলেও ধীরে ধীরে পট পরিবর্তন করছে তালেবান সরকার। তালেবান ক্ষমতা নেওয়ার পর দেশটিতে নারীদের আবারও কাজ থেকে বিরত রাখা হয়। তালেবান নারীবিষয়ক মন্ত্রণালয়ও বন্ধ করে দেয়। এতে তীব্র সমালোচনা শুরু হয় বিশ্বজুড়ে। নারীদের শিক্ষার অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য সোচ্চার বিশ্ব সম্প্রদায়। আফগানিস্তানের নারীরাও তাদের অধিকার আদায়ের জন্য আন্দোলনে নামেন। অবশেষে মাধ্যমিকের মেয়েরাও যাবে স্কুলে আফগানিস্তানে।