The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ২৪শে জুন, ২০২৪

বৃষ্টির জন্য ‘সালাতুল ইসতিসকা’র অনুমতি দেয়নি ঢাবি প্রশাসন

তীব্র দাবদাহের সঙ্গে কড়া রোদ আর অসহ্য গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে জনজীবন। আর এ কারণে সারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টির জন্য ইসতিসকার নামাজ আদায় করা হচ্ছে। একই কারণে অনুষঙ্গ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগও ইসতিসকার নামাজ আদায়ের প্রস্তুতি নেয়। তবে সেটির অনুমতি দেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

সংশ্লিষ্টরা জানায়, তীব্র দাবদাহের কষ্ট থেকে মুক্তি, কৃত গুনাহের জন্য ক্ষমা ও বৃষ্টি প্রার্থনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও সর্বসাধারণকে নিয়ে আজ বুধবার বেলা ১১টায় হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলের মাঠে ইসতিসকার নামাজের ঘোষণা দেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। নামাজের ইমামতি ও মোনাজাতের জন্য নির্ধারণ করা হয় শাইখ অধ্যাপক মুখতার আহমাদকে। তবে ঘোষণা দিয়েও অনুমতি মেলেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের।

পরে অধ্যাপক মুখতার আহমদ তার ফেসবুকে লিখেন, ‘অনিবার্য কারণবশত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আগামীকালের সলাতুল ইসতিসকা/বৃষ্টি প্রার্থনার নামাজের আয়োজন স্থগিত করা হয়েছে। নামাজের পরিবর্তিত স্থান ও সময় পরবর্তীতে জানিয়ে দেওয়া হবে ইনশাআল্লাহ।’

ইসতিসকার নামাজের উদ্যোগ গ্রহণকারীদের একজন হলেন এবি জোবায়ের। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সবার সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে আমরা নামাজের জন্য সময় ঘোষণা করি। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমাদের ডেকে নিষেধ করা হয়। তাই স্থগিত করা হয়েছে।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. মাকসুদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, তীব্র দাবদাহের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইন ক্লাশ ঘোষণা করেছে। সে জায়গায় আমরা খোলা মাঠে নামাজের অনুমতি দিতে পারি না। নামাজের জন্য আমাদের কেন্দ্রীয় মসজিদ রয়েছে, হলে হলে মসজিদ রয়েছে, ইমাম-খতিবও রয়েছে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.