The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বৃহস্পতিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২৪

বিমানবাহিনীর অফিসার ক্যাডেট হতে চাইলে

বাংলাদেশ বিমানবাহিনী ৮৭ বিএএফএ কোর্সে অফিসার ক্যাডেট হিসেবে সারা দেশ থেকে লোক নেবে। বিমানবাহিনীর ওয়েবসাইট ও পত্রিকায় এ–সংক্রান্ত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। নারী-পুরুষ উভয়েই আবেদনের সুযোগ পাবেন। ইতিমধ্যে অনলাইনে আবেদন শুরু হয়েছে। বিমানবাহিনীতে পেশা গড়ার স্বপ্ন যাঁদের, তাঁরা আবেদন করতে পারেন। ২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীরাও আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের শেষ তারিখ আগামী ৯ সেপ্টেম্বর।

আবেদনের যোগ্যতা
বিমানবাহিনীর মোট চারটি শাখায় জনবল নেওয়া হবে। শাখাগুলো হলো জিডি (পি), ইঞ্জিনিয়ারিং, লজিস্টিক/এটিসি/এডিডব্লিউসি ও অ্যাডমিন। জিডি (পি) ও লজিস্টিক/এটিসি/এডিডব্লিউসি শাখার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক (বিজ্ঞান) উভয় পরীক্ষায় জিপিএ-৪.৫০ এবং পদার্থ ও গণিতে ন্যূনতম লেটার গ্রেড এ। অথবা ও লেভেলে পদার্থ, গণিতসহ কমপক্ষে পাঁচটি বিষয়ে লেটার গ্রেড বি এবং এ লেভেলে পদার্থ ও গণিতে কমপক্ষে লেটার গ্রেড বি। ইঞ্জিনিয়ারিং শাখার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক (বিজ্ঞান) উভয় পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয় ব্যতীত কমপক্ষে জিপিএ–৪.৫০ এবং পদার্থ, রসায়ন ও গণিতে কমপক্ষে লেটার গ্রেড এ অথবা ও লেভেলে পদার্থ, গণিতসহ কমপক্ষে পাঁচটি বিষয়ে ন্যূনতম লেটার গ্রেড বি এবং এ লেভেলে পদার্থ ও গণিতে ন্যূনতম লেটার গ্রেড বি। অ্যাডমিন শাখার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক উভয় পরীক্ষায় যেকোনো শাখায় ন্যূনতম জিপিএ-৪.৫০ অথবা ও লেভেলে কমপক্ষে পাঁচটি বিষয়ে ন্যূনতম লেটার গ্রেড বি এবং এ লেভেলে দুটি বিষয়ে ন্যূনতম লেটার গ্রেড বি।

অন্যান্য যোগ্যতা
সব শাখায় আবেদনের জন্য প্রার্থীকে অবিবাহিত হতে হবে। ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি তারিখে প্রার্থীর বয়স ১৬ বছর ৬ মাস থেকে ২২ বছরের মধ্যে হতে হবে। পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা কমপক্ষে ৬৪ ইঞ্চি, বুকের মাপ কমপক্ষে ৩২ ইঞ্চি, প্রসারণ ২ ইঞ্চি। নারী প্রার্থীদের উচ্চতা জিডি (পি) শাখার জন্য ৬৪ ইঞ্চি, অন্যান্য শাখার জন্য ৬২ ইঞ্চি, বুকের মাপ কমপক্ষে ২৮ ইঞ্চি, প্রসারণ ২ ইঞ্চি। উভয় প্রার্থীদের ওজন বয়স ও উচ্চতা অনুযায়ী হতে হবে। এ ছাড়া জিডি (পি) শাখার প্রার্থীদের জন্য চোখের দৃষ্টিশক্তি হতে হবে ৬/৬ এবং অন্যান্য শাখার প্রার্থীদের জন্য চোখের দৃষ্টিশক্তি প্রয়োজনীয় বিধি অনুযায়ী হতে হবে।

অযোগ্যতা
সেনা/নৌ/বিমানবাহিনী অথবা অন্য কোনো সরকারি চাকরি থেকে বরখাস্ত/অপসারিত/ স্বেচ্ছায় অবসর গ্রহণ, আইএসএসবি পরীক্ষায় দুবার স্ক্রিনড আউট অথবা দুবার প্রত্যাখ্যাত, যেকোনো ফৌজদারি অপরাধের জন্য আদালতের রায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত ও সিএমবি অথবা আপিল মেডিকেল বোর্ড থেকে প্রত্যাখ্যাত হলে আবেদন করা যাবে না। প্রার্থীর বয়স ১৯ বছর হওয়ার আগে ল্যাসিক করা হলে গ্রহণযোগ্য নয়। ১৯ বছর বয়সের পর ল্যাসিক করা হলে, ল্যাসিক অপারেশনের তারিখ থেকে চোখ পরীক্ষার তারিখের মধ্যে ন্যূনতম ৬ মাস অতিবাহিত হতে হবে।

যেভাবে আবেদন
অনলাইনে আবেদনের জন্য বিমানবাহিনীর ওয়েবসাইটে (www.joinbangladeshairforce.mil.bd) প্রবেশ করে ‘অ্যাপ্লাই নাউ’ অপশনে ক্লিক করতে হবে। নির্দেশনা অনুযায়ী নিবন্ধন করে ফি বাবদ এক হাজার টাকা জমা দিতে হবে। এরপর নিবন্ধন করা মুঠোফোনে ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড পেলে লগইন করে অনলাইনে আবেদনপত্র পূরণ করে প্রিন্ট করতে হবে। প্রাথমিক লিখিত পরীক্ষার নির্ধারিত তারিখে সম্প্রতি তোলা পাসপোর্ট সাইজের ১২ কপি সত্যায়িত ছবি, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, অন্য সনদের সত্যায়িত ফটোকপিসহ বিমানবাহিনী তথ্য ও নির্বাচনী কেন্দ্রে জমা দিতে হবে।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
প্রার্থীদের আবেদনপত্র সঠিকভাবে পূরণ করতে পরীক্ষার সময় বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত সনদসহ পরীক্ষাকেন্দ্রে উপস্থিত হতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতার সব সাময়িক সনদ, প্রশংসাপত্র এবং নম্বরপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি পরীক্ষাকেন্দ্রে সঙ্গে আনতে হবে। নাগরিকত্ব, চারিত্রিক সনদ, বৈবাহিক অবস্থা ও স্থায়ী ঠিকানার সনদ জমা দিতে হবে। এ ছাড়া বর্তমান বা সর্বশেষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান কর্তৃক চারিত্রিক সনদ, জন্মনিবন্ধন বা জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত ফটোকপি সঙ্গে আনতে হবে।

প্রশিক্ষণ ও কমিশন
বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমিতে ১০ সপ্তাহসহ বাংলাদেশ বিমানবাহিনী একাডেমিতে ৩ বছর মেয়াদি প্রশিক্ষণ শেষে ‘ফ্লাইং অফিসার’ পদবিতে নিয়মিত কমিশন প্রদান করা হবে। কমিশন পাওয়ার পরবর্তী ১ বছরসহ মোট ৪ বছর মেয়াদি স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রি প্রদান করা হবে।

সুযোগ-সুবিধা
প্রশিক্ষণকালীন অফিসার ক্যাডেটদের মাসিক বেতন ১০ হাজার টাকা এবং প্রশিক্ষণ শেষে পদবি অনুসারে আকর্ষণীয় বেতন ও ভাতা দেওয়া হবে। বিমানবাহিনীতে রয়েছে বৈমানিক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার সুযোগ। এ ছাড়া ইঞ্জিনিয়ারিং অফিসার, লজিস্টিক অফিসার, এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলার, এয়ার ডিফেন্স উইপন কন্ট্রোলার এবং অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার সুযোগ রয়েছে। বিদেশে প্রশিক্ষণের বিভিন্ন পর্যায়ে এবং কমিশনপ্রাপ্তির পর মেধাবী অফিসার ক্যাডেট ও অফিসারদের পেশাগত প্রশিক্ষণের জন্য বিদেশ যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণেরও সুযোগ রয়েছে। বিমানবাহিনীর তত্ত্বাবধানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস ইউনিভার্সিটি, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসসহ দেশ-বিদেশে মাস্টার্স-পিএইচডিসহ উচ্চতর শিক্ষা অর্জন করতে পারবেন। বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাসগুলোতে সামরিক/সহকারী সামরিক উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগের সুযোগ রয়েছে। সন্তানদের জন্য যোগ্যতার ভিত্তিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস ইউনিভার্সিটি, বিইউপি, আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজ, এমআইএসটি, ক্যাডেট কলেজ ও বিমানবাহিনী পরিচালিত স্কুল-কলেজে অধ্যয়নের সুযোগ রয়েছে। বিমানবাহিনীর এক ঘাঁটি থেকে অন্য ঘাঁটিতে সপরিবার বিমান বা হেলিকপ্টারযোগে যাতায়াতের সুযোগ, বাসস্থান ও রেশনপ্রাপ্তির সুযোগ, সামরিক হাসপাতালে নিজের ও পরিবারের চিকিৎসার সুযোগ রয়েছে।

বিস্তারিত জানতে
বিস্তারিত তথ্য ও যোগাযোগের জন্য বাংলাদেশ বিমানবাহিনী তথ্য ও নির্বাচনী কেন্দ্র, পুরাতন বিমানবন্দর, তেজগাঁও, ঢাকা-১২১৫ ঠিকানায় যোগাযোগ করতে হবে। এ ছাড়া এই ওয়েবসাইটে (www.joinbangladeshairforce.mil.bd) নিয়োগসংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জানা যাবে।

নির্বাচনপদ্ধতি
প্রার্থীদের কয়েকটি ধাপে পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। প্রথমে নেওয়া হবে প্রাথমিক লিখিত পরীক্ষা, যার মধ্যে থাকবে আইকিউ, ইংরেজি, গণিত ও পদার্থ। শুধু অ্যাডমিন শাখার প্রার্থীদের জন্য আইকিউ, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান। এরপর প্রাথমিক ডাক্তারি পরীক্ষা, প্রাথমিক মৌখিক পরীক্ষা এবং আন্তঃবাহিনী নির্বাচন পর্ষদ (আইএসএসবি), কেন্দ্রীয় চিকিৎসা পরিষদ (সিএমবি) কর্তৃক চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও ক্যাডেট চূড়ান্ত নির্বাচন পর্ষদ (সিএফএসবি) কর্তৃক চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত করার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষাকেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ডিভাইস (মুঠোফোন, ক্যালকুলেটর, ঘড়ি) ও ব্যাগ বহন করা সম্পূর্ণ নিষেধ।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.