The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪

বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা নিবে ঢাবি, চবি; প্রস্তুতি নেই রাবির

ফজলে রাব্বী পরশ, রাবি: ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের নানা ভোগান্তির কথা চিন্তা করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পর এবার বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা চবি ক্যাম্পাসের পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, গত দুই বছর ধরে বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের কথা বললেও কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়।

রোববার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত উপ-কমিটির একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ও আবেদন শুরু এবং শেষের বিস্তারিত সময়সীমা ঘোষণা করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। সভা সূত্রে জানা গেছে, বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়ে কোনো আলোচনা সেখানে হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, নতুন শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা বিভাগীয় শহরে আয়োজনের ব্যাপারে কোনো প্রস্তুতি নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ইউজিসি একক ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার পর পর্যাপ্ত সময় না থাকায়, বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়ে প্রস্তুতি নিতে পারেনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়।

বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা আয়োজনের প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সালেহ হাসান নকীব বলেন, ‘ঠিক কোন কারণে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটি আমি নিশ্চিত নই। তবে বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা নিলে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি অনেকটাই কমে আসবে। শুরুতেই সব বিভাগীয় শহরে না গিয়ে একটি বা দুটি বিভাগে ট্রাই করা যেতে পারে। বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা করার সময় এসেছে বলে আমি মনে করি।’

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. ফরিদ উদ্দিন খান বলেন, ‘গত বছরও তো বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা নেবার ব্যাপারে প্রশাসন এক প্রকার কমিটমেন্ট করেছিল। কিন্তু ঠিক কোন কারণে এটি হচ্ছেনা, তারাই ভালো জানেন। আমার কাছে মনে হয় এখানে সদিচ্ছার অভাব রয়েছে। গতবারও
শিক্ষার্থীদের যে অর্থনৈতিক, শারীরিক ও মানসিক ভোগান্তি হয়েছে বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা নিলে অনেকটাই কমে আসতো।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. সুলতান-উল-ইসলাম বলেন, ‘জনবল সংকটসহ পারিপার্শ্বিক নানা কারণে বিভাগীয় শহরে পরীক্ষা আয়োজন করা সম্ভব হচ্ছে না। আমাদের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার একটি সুনাম রয়েছে; আমরা চাই সেটি অক্ষুন্ন থাকুক। গত দুই বছরে দেখা গেছে একটি সংঘবদ্ধ চক্র এই ভর্তি পরীক্ষাকে ঘিরে জালিয়াতি করার চেষ্টা করছে; ওদেরকে আমরা শাস্তির আওতায়ও নিয়ে এসেছি। ফলে সবকিছু মিলিয়েই ডীন, ইন্সটিটিউটের পরিচালকদের কমিটি ভর্তি পরীক্ষাটিকে ক্যাম্পাসেই সীমাবদ্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

উল্লেখ্য, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২৩-২৪ সেশনের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে আগামী বছরের ৫ মার্চ। ভর্তির প্রাথমিক আবেদন ৮ জানুয়ারি দুপুর ১২টা থেকে ১৭ জানুয়ারি ২০২৪ রাত ১২টা পর্যন্ত চলবে। চূড়ান্ত আবেদন প্রথম দফা ২৬ থেকে ২৯ জানুয়ারি, দ্বিতীয় দফা ১ থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি, তৃতীয় দফা ৬ ও ৭ ফেব্রুয়ারি এবং চতুর্থ দফা ১০ ও ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ পর্যন্ত করা যাবে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.