The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শনিবার, ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪

বল-ব্যাট ছেড়ে বইয়ে মগ্ন বাবর-রিজওয়ান

পাকিস্তান জাতীয় দলের অধিনায়ক বাবর আজম ও উইকেটরক্ষক ব্যাটার মোহাম্মদ রিজওয়ান আমেরিকার বিখ্যাত হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলে ভর্তি হয়েছেন। তাদের আপাতত আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা নেই। তাইতো তারা এবার বসেছেন বই নিয়ে, করছেন স্টাডি। অধিনায়ক বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান নতুন শিক্ষাজীবন শুরুর ঘোষণা দিয়েছেন। সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করা এক ছবিতে তাদের ছাত্র হয়ে বইয়ে মুখ গুজতেও দেখা গেল!

প্রথম বারের মত এবারই ক্রিকেটার হিসেবে তারা হার্ভার্ডের বিজনেস অব ইন্টারটেইনমেন্ট, মিডিয়া অ্যান্ড স্পোর্টস (বিইএমএস) বিভাগে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। আজ (৩১ মে) থেকে ৩ জুন পর্যন্ত তাদের ম্যাসাচুসেটসের বোস্টন ক্যাম্পাসে ক্লাস করার কথা রয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার (৩০ মে) বাবর আজম তার টুইটার থেকে একটি ছবি শেয়ার করে পড়ালেখার বিষয়টি জানান দেন। ওই ছবিতে সোফায় শুয়ে পা ওপরের দিকে দিয়ে পড়তে দেখা যায় পাকিস্তান অধিনায়ককে। আর নিচে বসে পড়ছেন রিজওয়ান। ওই ছবিতে একটি অট্টহাসির ইমোজি দিয়ে ক্যাপশনে বাবর লিখেছেন, ‘এ কী হয়ে গেল!’ তাদের সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

গত রোববার (২৮ মে) সাবেক পাকিস্তানি উইকেটরক্ষক ব্যাটার রশীদ লতিফ প্রথম টুইট করে বাবর-রিজওয়ানে নতুন শিক্ষাজীবন শুরুর বিষয়টি জানিয়েছিলেন। ওই সময় তিনি বলেছিলেন, ‘তালহা রেহমানিকে মেন্টর বানানোর মধ্য দিয়ে বাবর আজম ও রিজওয়ান হার্ভার্ডে মর্যাদাপূর্ণ শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করছে। ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের নম্বর ওয়ান ও পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর ও টেস্টে তার সহ-অধিনায়ক রিজওয়ান প্রথম কোনো ক্রিকেটার হিসেবে হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের এক্সিকিউটিভ এডুকেশন প্রোগ্রামে যোগ দেবে।‌’

এডুকেশন প্রোগ্রামটিতে ভর্তি হতে ও ক্লাস করতে বর্তমানে দুই ক্রিকেটার করাচি থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিয়েছেন। আগামী ৩১ মে থেকে ৩ জুন পর্যন্ত হার্ভার্ডের বোস্টন ক্যাম্পাসে ক্লাস করার কথা রয়েছে তাদের।

ছাত্র হিসেবে নতুন এই যাত্রা শুরুর আগে আকাঙ্খা ও আনন্দের কথা জানিয়ে বাবর বলেন, ‘আমি একজন আমৃত্যু শিক্ষার্থী এবং সে ধারাবাহিকতায় উক্ত প্রোগ্রামের বিষয়ে প্রফেসর অ্যালবার্স ও রেহমানির সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলেছি। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, বিইএমএসের দারুণ সব অ্যাথলেট এবং উচ্চমানের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে আমরা অনেক বিষয়ে জ্ঞানলাভ করতে পারব।’

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. খেলাধুলা
  3. বল-ব্যাট ছেড়ে বইয়ে মগ্ন বাবর-রিজওয়ান

বল-ব্যাট ছেড়ে বইয়ে মগ্ন বাবর-রিজওয়ান

পাকিস্তান জাতীয় দলের অধিনায়ক বাবর আজম ও উইকেটরক্ষক ব্যাটার মোহাম্মদ রিজওয়ান আমেরিকার বিখ্যাত হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলে ভর্তি হয়েছেন। তাদের আপাতত আন্তর্জাতিক ব্যস্ততা নেই। তাইতো তারা এবার বসেছেন বই নিয়ে, করছেন স্টাডি। অধিনায়ক বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান নতুন শিক্ষাজীবন শুরুর ঘোষণা দিয়েছেন। সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করা এক ছবিতে তাদের ছাত্র হয়ে বইয়ে মুখ গুজতেও দেখা গেল!

প্রথম বারের মত এবারই ক্রিকেটার হিসেবে তারা হার্ভার্ডের বিজনেস অব ইন্টারটেইনমেন্ট, মিডিয়া অ্যান্ড স্পোর্টস (বিইএমএস) বিভাগে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। আজ (৩১ মে) থেকে ৩ জুন পর্যন্ত তাদের ম্যাসাচুসেটসের বোস্টন ক্যাম্পাসে ক্লাস করার কথা রয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার (৩০ মে) বাবর আজম তার টুইটার থেকে একটি ছবি শেয়ার করে পড়ালেখার বিষয়টি জানান দেন। ওই ছবিতে সোফায় শুয়ে পা ওপরের দিকে দিয়ে পড়তে দেখা যায় পাকিস্তান অধিনায়ককে। আর নিচে বসে পড়ছেন রিজওয়ান। ওই ছবিতে একটি অট্টহাসির ইমোজি দিয়ে ক্যাপশনে বাবর লিখেছেন, ‘এ কী হয়ে গেল!’ তাদের সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।

গত রোববার (২৮ মে) সাবেক পাকিস্তানি উইকেটরক্ষক ব্যাটার রশীদ লতিফ প্রথম টুইট করে বাবর-রিজওয়ানে নতুন শিক্ষাজীবন শুরুর বিষয়টি জানিয়েছিলেন। ওই সময় তিনি বলেছিলেন, ‘তালহা রেহমানিকে মেন্টর বানানোর মধ্য দিয়ে বাবর আজম ও রিজওয়ান হার্ভার্ডে মর্যাদাপূর্ণ শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করছে। ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের নম্বর ওয়ান ও পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর ও টেস্টে তার সহ-অধিনায়ক রিজওয়ান প্রথম কোনো ক্রিকেটার হিসেবে হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের এক্সিকিউটিভ এডুকেশন প্রোগ্রামে যোগ দেবে।‌’

এডুকেশন প্রোগ্রামটিতে ভর্তি হতে ও ক্লাস করতে বর্তমানে দুই ক্রিকেটার করাচি থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দিয়েছেন। আগামী ৩১ মে থেকে ৩ জুন পর্যন্ত হার্ভার্ডের বোস্টন ক্যাম্পাসে ক্লাস করার কথা রয়েছে তাদের।

ছাত্র হিসেবে নতুন এই যাত্রা শুরুর আগে আকাঙ্খা ও আনন্দের কথা জানিয়ে বাবর বলেন, ‘আমি একজন আমৃত্যু শিক্ষার্থী এবং সে ধারাবাহিকতায় উক্ত প্রোগ্রামের বিষয়ে প্রফেসর অ্যালবার্স ও রেহমানির সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলেছি। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, বিইএমএসের দারুণ সব অ্যাথলেট এবং উচ্চমানের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে আমরা অনেক বিষয়ে জ্ঞানলাভ করতে পারব।’

 

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন