The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২৪

প্রেমের টানে ভারতীয় তরুণী সিরাজগঞ্জে

নাইসা মল্লিক (২৬) নামের এক ভারতীয় তরুণী প্রেমের টানে দেশ ছেড়ে বাংলাদেশে এসেছেন। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় এসে ঘর বেঁধেছেন ওই তরুণী। দেশ ছেড়ে আসা তরুণী উপজেলার বালসাবাড়ী গ্রামের জুয়েল সরকারের (২৪) সথে বিয়ে করেছেন। ভারত থেকে আসা তরুণীকে দেখতে জুয়েলের বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছে উৎসুক গ্রামবাসী।

জানা যায়, ফেসবুকের সূত্র ধরেই প্রায় দেড় বছর পূর্বে ভারতীয় তরুণী নাইসা মল্লিকের সাথে পরিচয় হয় জুয়েলের। তার পর একে অপরের সাথে বোঝা পড়ার মাধ্যমে গড়ে তোলেন প্রেমের সম্পর্ক। গত বুধবার (৩১ মে) উল্লাপাড়া উপজেলার বালসাবাড়ী গ্রামে আসেন ভারতীয় তরুণী নাইসা।

বালসাবাড়ী গ্রামের ইরান সরকারের ছেলে প্রেমিক জুয়েল সরকারের সঙ্গে বৃহস্পতিবার বিয়ে হয় তার। প্রেমিক জুয়েল সরকার বলেন, দীর্ঘ দেড় বছর সম্পর্কের পর নাইসার সঙ্গে আমার বিয়ে কথা হয়। তাই নাইসা গত বুধবার দেশ ছেড়ে আমার কাছে চলে আসে। নাইসাকে পেয়ে আমি খুবই খুশি।

ভারতীয় তরুণী নাইসা মল্লিকের  বাবার নাম খয়রুল আলম মল্লিক। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলার দশনগর থানার ধারসা ছোট মল্লিকপাড়ায় তাদের বাড়ি।

নাইসা মল্লিক বলেন, জুয়েলের সাথ আমার সম্পর্কের কথা আমার পরিবারকে জানালে তারা মেনে নিতে অস্বীকার করেন। তাই পরিবার ছেড়ে ভালোবাসার মানুষের কাছে চলে আসার সিদ্ধান্ত নিই। তারপর পাসপোর্ট ও ভিসার মাধ্যমে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ইমিগ্রেশন শেষ করে বাংলাদেশে আসি। এখানে আসার পর বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী আমাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। পছন্দের মানুষকে বিয়ে করতে পেরে তিনি অনেক আনন্দিত এবং অনেক সুখে আছেন বলে জানান নাইসা।

এ ব্যাপারে ছেলের বাবা ইরান সরকার বলেন, ভারতীয় তরুণীর সঙ্গে আমার ছেলে জুয়েলের ফেসবুকের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক হয়। এরপর ওই মেয়ে আমার বাড়িতে চলে আসে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় এবং ছেলে-মেয়ে দুজনের সম্মতিতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বর্তমানে তারা সুখে-শান্তিতে সংসার করছে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. জাতীয়
  3. প্রেমের টানে ভারতীয় তরুণী সিরাজগঞ্জে

প্রেমের টানে ভারতীয় তরুণী সিরাজগঞ্জে

নাইসা মল্লিক (২৬) নামের এক ভারতীয় তরুণী প্রেমের টানে দেশ ছেড়ে বাংলাদেশে এসেছেন। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় এসে ঘর বেঁধেছেন ওই তরুণী। দেশ ছেড়ে আসা তরুণী উপজেলার বালসাবাড়ী গ্রামের জুয়েল সরকারের (২৪) সথে বিয়ে করেছেন। ভারত থেকে আসা তরুণীকে দেখতে জুয়েলের বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছে উৎসুক গ্রামবাসী।

জানা যায়, ফেসবুকের সূত্র ধরেই প্রায় দেড় বছর পূর্বে ভারতীয় তরুণী নাইসা মল্লিকের সাথে পরিচয় হয় জুয়েলের। তার পর একে অপরের সাথে বোঝা পড়ার মাধ্যমে গড়ে তোলেন প্রেমের সম্পর্ক। গত বুধবার (৩১ মে) উল্লাপাড়া উপজেলার বালসাবাড়ী গ্রামে আসেন ভারতীয় তরুণী নাইসা।

বালসাবাড়ী গ্রামের ইরান সরকারের ছেলে প্রেমিক জুয়েল সরকারের সঙ্গে বৃহস্পতিবার বিয়ে হয় তার। প্রেমিক জুয়েল সরকার বলেন, দীর্ঘ দেড় বছর সম্পর্কের পর নাইসার সঙ্গে আমার বিয়ে কথা হয়। তাই নাইসা গত বুধবার দেশ ছেড়ে আমার কাছে চলে আসে। নাইসাকে পেয়ে আমি খুবই খুশি।

ভারতীয় তরুণী নাইসা মল্লিকের  বাবার নাম খয়রুল আলম মল্লিক। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলার দশনগর থানার ধারসা ছোট মল্লিকপাড়ায় তাদের বাড়ি।

নাইসা মল্লিক বলেন, জুয়েলের সাথ আমার সম্পর্কের কথা আমার পরিবারকে জানালে তারা মেনে নিতে অস্বীকার করেন। তাই পরিবার ছেড়ে ভালোবাসার মানুষের কাছে চলে আসার সিদ্ধান্ত নিই। তারপর পাসপোর্ট ও ভিসার মাধ্যমে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ইমিগ্রেশন শেষ করে বাংলাদেশে আসি। এখানে আসার পর বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী আমাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। পছন্দের মানুষকে বিয়ে করতে পেরে তিনি অনেক আনন্দিত এবং অনেক সুখে আছেন বলে জানান নাইসা।

এ ব্যাপারে ছেলের বাবা ইরান সরকার বলেন, ভারতীয় তরুণীর সঙ্গে আমার ছেলে জুয়েলের ফেসবুকের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক হয়। এরপর ওই মেয়ে আমার বাড়িতে চলে আসে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় এবং ছেলে-মেয়ে দুজনের সম্মতিতে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বর্তমানে তারা সুখে-শান্তিতে সংসার করছে।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন