প্রকৌশল গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষা পেছাবে কিনা জানা যাবে আগামী সপ্তাহে

চলমান করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে তিনটি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামী সপ্তাহে বৈঠকে বসতে যাচ্ছে সেন্ট্রাল এডমিশন কমিটি। বৈঠকে পরীক্ষা পেছানো না পেছানোর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানা গেছে।

তথ্যমতে, গত ২০ এপ্রিল তিনটি প্রকৌশল গুচ্ছের সমন্বিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এই তিন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদন শুরু হয় ২৪ এপ্রিল থেকে। আগামী ২ জুন পরীক্ষায় অংশগ্রহণে যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে। আর আগামী জুন মাসের ১২ তারিখে পরীক্ষা আয়োজনের কথা জানিয়েছিল ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটি। তবে করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভুত পরিস্থিতি বিবেচনায় পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে ভাবছে সেন্ট্রাল এডমিশন কমিটি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দেশে করোনার ভারতীয় ধরন ছড়িয়ে পড়ায় সংক্রমণ বৃদ্ধির আশংকা করা হচ্ছে। আগামী জুন মাসে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাবে বলে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। এই অবস্থায় ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে সেন্ট্রাল এডমিশন কমিটি।

সূত্র আরও জানায়, করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কথা বিবেচনা করে ইতোমধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। এই অবস্থায় প্রকৌশল গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষাও পেছানো হতে পারে। বিষয়টি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতেই আগামী সপ্তাহে বৈঠকে করবে সেন্ট্রাল এডমিশন কমিটি।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে প্রকৌশল গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আয়োজক কমিটির আহবায়ক ও চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. রফিকুল আলম বৃহস্পতিবার (২০ মে) দুপুরে
বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় হয়তো ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, পরীক্ষা নিয়ে আমাদের সেন্ট্রাল এডমিশন কমিটি কাজ করছে। প্রকৌশল গুচ্ছে যাওয়া প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনজন করে ডিন এই কমিটিতে রয়েছেন। আগামী সপ্তাহে এই কমিটির মিটিং রয়েছে। সেই বৈঠকে পরীক্ষা পেছানো না পেছানোর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।