The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪

পদ ছাড়ছেন সুইডেনের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী

পদত্যাগ করার ঘোষণা দিয়েছেন সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী মাগডালেনা অ্যান্ডারসন। বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগপত্র জমা দেবেন তিনি। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

গত রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত সুইডেনের সাধারণ নির্বাচনে ক্ষমতাসীনদের তুলনায় এগিয়ে রয়েছে রক্ষণশীল দলগুলোর জোট। তাই চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণার আগেই পদ ছাড়ার কথা জানালেন দেশটির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী মাগডালেনা অ্যান্ডারসন।

অ্যান্ডারসন বলেন, ‘পার্লামেন্টে রক্ষণশীলরা আমাদের চেয়ে একটি কিংবা দুটি আসনে এগিয়ে থাকবে। ব্যবধান কম হলেও এটি সংখ্যাগরিষ্ঠতা। তাই আমি নির্বাচনের ফলাফল মেনে নিয়ে পদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

ধারণা করা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী পদে মাগডালেনা অ্যান্ডারসনের স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন মডারেট পার্টির নেতা উলফ ক্রিস্টারসন।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত ৯৯ শতাংশ নির্বাচনী এলাকার ভোট গণনা শেষে ৩৪৯ আসনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী মাগডালেনা অ্যান্ডারসনের নেতৃত্বাধীন মধ্য বামপন্থিরা ১৭৩টিতে জয় পেয়েছে। অন্যদিকে মডারেট, সুইডেন ডেমোক্র্যাটস, ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাট ও লিবারেলদের জোট ১৭৬টি আসন পেয়েছে।

গত বছরের নভেম্বরে স্টেফান লোফভেনের পদত্যাগের পর সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী হন সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা মাগডালেনা অ্যান্ডারসন।

অ্যান্ডারসনের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটস আট বছর ধরে দেশটিতে ক্ষমতায় রয়েছে। আর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার আগে সাত বছর সুইডেনের অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। ৫৪ বছর বয়সী মাগডালেনা অ্যান্ডারসন দেশটির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. পদ ছাড়ছেন সুইডেনের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী

পদ ছাড়ছেন সুইডেনের প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী

পদত্যাগ করার ঘোষণা দিয়েছেন সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী মাগডালেনা অ্যান্ডারসন। বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগপত্র জমা দেবেন তিনি। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

গত রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত সুইডেনের সাধারণ নির্বাচনে ক্ষমতাসীনদের তুলনায় এগিয়ে রয়েছে রক্ষণশীল দলগুলোর জোট। তাই চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণার আগেই পদ ছাড়ার কথা জানালেন দেশটির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী মাগডালেনা অ্যান্ডারসন।

অ্যান্ডারসন বলেন, ‘পার্লামেন্টে রক্ষণশীলরা আমাদের চেয়ে একটি কিংবা দুটি আসনে এগিয়ে থাকবে। ব্যবধান কম হলেও এটি সংখ্যাগরিষ্ঠতা। তাই আমি নির্বাচনের ফলাফল মেনে নিয়ে পদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

ধারণা করা হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী পদে মাগডালেনা অ্যান্ডারসনের স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন মডারেট পার্টির নেতা উলফ ক্রিস্টারসন।

বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত ৯৯ শতাংশ নির্বাচনী এলাকার ভোট গণনা শেষে ৩৪৯ আসনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী মাগডালেনা অ্যান্ডারসনের নেতৃত্বাধীন মধ্য বামপন্থিরা ১৭৩টিতে জয় পেয়েছে। অন্যদিকে মডারেট, সুইডেন ডেমোক্র্যাটস, ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাট ও লিবারেলদের জোট ১৭৬টি আসন পেয়েছে।

গত বছরের নভেম্বরে স্টেফান লোফভেনের পদত্যাগের পর সুইডেনের প্রধানমন্ত্রী হন সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতা মাগডালেনা অ্যান্ডারসন।

অ্যান্ডারসনের সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটস আট বছর ধরে দেশটিতে ক্ষমতায় রয়েছে। আর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার আগে সাত বছর সুইডেনের অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। ৫৪ বছর বয়সী মাগডালেনা অ্যান্ডারসন দেশটির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন