The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪

নিরাপত্তাজনিত কারণে ক্যাম্পাসে আসেননি ফুলপরী, বয়ান দিলেন অনলাইনেই

মোস্তাক মোর্শেদ, ইবিঃ  ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) আবাসিক হলে ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ফুলপরীর সাথে কথা বলেছে শাখা ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটির সদস্যরা।

রোববার (২৬ ফেব্রুয়ারী) বেলা ১২ টার দিকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে তদন্ত কমিটির সদস্যরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। এসময় তদন্ত কমিটির সদস্যদের মধ্যে ছিলো মুন্সী কামরুল হাসান অনিক, বনি আমিন ও রাকিবুল ইসলাম। এর আগে ভুক্তভোগী ফুলপরীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ক্যাম্পাসে ডাকা হলেও নিরাপত্তাজনিত কারণে অনলাইনেই তার বয়ান নেয়া হয়।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ফুলপরী জানান, ছাত্রলীগের সাথে আমার অনলাইনে কথা হয়েছে। তারা আমাকে ক্যাম্পাসে ডাকেন। কিন্তু বাড়ি থেকে ক্যাম্পাস দূরে হওয়ায় নিরাপত্তার অভাবে আমি সেখানে যেতে পারিনি। তদন্ত রিপোর্টের ব্যাপারে আমার ছাত্রলীগ সহ সকলের প্রতি আস্থা আছে তারা সুষ্ঠু প্রতিবেদন জমা দিবে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ভাই আমার সাথে কথা বলেছেন এবং সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ দেন।

শাখা ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটির সদস্যরা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাংবাদিকদের জানান, আমরা কথা যা বলার বলেছি আজকেই আমরা আমাদের প্রতিনিধির মাধ্যমে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কাছে পাঠাবো ওনারা দ্রুতই এর বিচার করবে। আমাদের সব তদন্তের কাজ কমপ্লিট শুধু তদন্তের রিপোর্টটা তৈরি করে আজকের মধ্যে বা কাল সকালের মধ্যে কেন্দ্রীয় সভাপতি বা সেক্রেটারি কাছে পাঠিয়ে দিবো। আমরা আমাদের শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি বা সেক্রেটারির মাধ্যে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগকে অবহিত করবো যে লিগ্যাল একশন নেওয়ার জন্য। তদন্তে কোনো সত্যতা পাওয়া গিয়েছে কিনা সেটি তদন্তের রিপোর্ট জমা দেওয়ার আগ পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না। আমরা ভুক্তভোগী, অভিযোগকারী এবং অভিযুক্ত যারা যারা আছেন এবং প্রত্যক্ষদোষী যারা ছিলেন, হলের প্রভোস্ট সবার সাথেই কথা বলে সুস্থ তদন্ত করেই রিপোর্ট জমা দিয়েছি। আমরা ফুল পরীর সাথে ১ ঘন্টা কথা বলেছি আর বাকিদের সাথে দুই বা সোয়া দুই ঘন্টা কথা বলেছি।

এ বিষয়ে ইবি শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহম্মেদ জয় বলেন, এবিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে কথা বলেছি। আমরা আশা করি আজ তদন্ত কমিটির রিপোর্ট কেন্দ্র জমা দিবো। সংগঠনের যদি কেউ অভিযুক্ত প্রমাণিত হয়, সাথে সাথে আমরা কেন্দ্রের সাথে সমন্বয় করে সর্বোচ্চ শাস্তির জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.