The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০২৪

নবীন শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত ইবি

ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ক্লাস শুরু হয়েছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা নবীন শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে ১৭৫ একরের ক্যাম্পাস।

শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে পৃথক পৃথকভাবে ক্লাস শুরু হয়।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্ব-স্ব বিভাগের আয়োজনে ওরিয়েন্টেশন ক্লাস শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবনের প্রথম ক্লাসে অংশ নিতে সকাল থেকে ছুটে আসে নবীন শিক্ষার্থীরা। বিভাগের উদ্যোগে নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন চত্বরে নবীন শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা যায়।

অনুভূতি প্রকাশ করে নবীন শিক্ষার্থী আইসিটি বিভাগের আশিক বলেন, ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার। সেই স্বপ্ন বাস্তবে পূরণ হয়েছে। ভালোভাবে পড়াশুনা করে ভালো কিছু করতে চাই।

বায়োটেকনোলজি বিভাগের নবীন শিক্ষার্থী নওশীন বলেন, প্রথমদিন এসেই ক্লাশ করেছি। শিক্ষকরা আমাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছে। প্রত্যাশা থাকবে সেশনজটে যেনো না পড়তে হয়।

চারুকলা বিভাগের নবীন শিক্ষার্থী
তানিয়া বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন আজ পূরণ হয়েছে। চারুকলা বিভাগে ভর্তি হয়েছি শুধু ক্যানভাসে চিত্রকর্মগুলো সীমাবদ্ধ রাখতে নয় রঙ তুলিতে ফুটিয়ে তুলতে চাই বাস্তবতা।

ফার্মেসি বিভাগের নবীন শিক্ষার্থী কৌশিকের অভিভাবক নিজেদের অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, সন্তান পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়বে সকল অভিভাবকেরই স্বপ্ন থাকে। এখন চাই শুধু আমার সন্তান নয় নবীন প্রবীন সকল শিক্ষার্থী যেনো জ্ঞান অর্জন করে সুস্থ মানসিকতা ধারণ করে তাদের বিশ্ববিদ্যালয় জীবন শেষ করতে পারে।

শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত বলেন, নবীন আজ আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেছে। তারাই ভবিষ্যতে নেতৃত্ব দেবে। তাই তাদের প্রতি আমার পরামর্শ থাকবে শুধু একাডেমিকভাবে নয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সামাজিক কর্মকাণ্ডে তাদের অংশগ্রহণ থাকবে। এছাড়াও শাখা ছাত্রলীগের দরজা তাদের জন্য সবসময় খোলা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. শাহাদৎ হোসেন আজাদ নবীন শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে আমারা সর্বদা সচেতন। পরিচয় পর্বের নামে হল ও মেসে ডেকে র‍্যাগিং এর অভিযোগ পেলেই আমরা ব্যবস্থা নিবো। এছাড়াও আমাদের এন্টি র‍্যাগিং ভিজিলেন্স টিম র‍্যাগিং প্রতিরোধে সারাদিনব্যাপী সচেতনতা মূলক মাইকিং করেছে। এককথায় র‍্যাগিংয়ের বিরুদ্ধে নো টলারেন্স।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, একজন শিক্ষক হিসেবে আমি সবসময় চাই একজন শিক্ষার্থী মানুষের মতো মানুষ হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের লেখাপড়া শেষ করুক। নবীন শিক্ষার্থীদের জন্য পড়াশোনার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করার দায়িত্ব আমাদের তারা শুধু পরিশ্রম করে লেখাপড়া করবে এবং পরিবারের মুখ উজ্জ্বল করবে। ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়কে দেশ বাসীর কাছে পরিচিত করে তুলবে।

কেন্দ্রীয় ওরিয়েন্টেশনের বিষয়ে উপাচার্য বলেন, অবশ্যই সেন্ট্রালী তাদের বরণ করে নেয়া হবে। খুব শীঘ্রই আমরা সিদ্ধান্ত জানাবো

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.