নতুন ১৩ হাজার সরকারি পদ সৃষ্টি হচ্ছে, সিদ্ধান্ত আজ

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে ১২ হাজার ৮৪২ নতুন পদ সৃষ্টি ও স্থায়ীকরণ হচ্ছে। এ সংক্রান্ত প্রস্তাব উঠছে প্রশাসনিক উন্নয়ন-সংক্রান্ত সচিব কমিটির বৈঠকে। আজ বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে জুমে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হবে।

জানা গেঠছে, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ থেকে পদ সৃষ্টির জন্য বড় প্রস্তাব এসেছে। করোনাকালে রোগীদের জরুরি চিকিৎসার জন্য দুই ধাপে ১০ হাজার সিনিয়র স্টাফ নার্স নিয়োগ দেয় সরকার। এসব পদ সৃষ্টির ভূতাপেক্ষ অনুমোদনে সচিব কমিটিতে উঠছে। প্রথম ধাপে ছয় হাজার ও দ্বিতীয় ধাপে চার হাজার নার্স নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল।

জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর ২২ জেলায় ৮৮ পদ অস্থায়ীভাবে রাজস্ব খাতে সৃজন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৩ ক্যাটাগরিতে ৭৬৬ পদ অনুমোদন, কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের ১০ পদ সৃজন, স্থাপত্য অধিদপ্তরের ১৭ পদ, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে ২১ অস্থায়ী পদ, মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটে ১৪১ পদের ভূতাপেক্ষ ও ১৬ পদ রাজস্ব খাতে অস্থায়ীভাবে সৃজন, স্র্রেডার ১৫ পদ রয়েছে।

এ ছাড়া শেরেবাংলা স্মৃতি জাদুঘরের অস্থায়ী হিসাব সহকারীর পদ, ১৪ সরকারি মেডিকেল কলেজের ২৮ পদ, ২৩ সরকারি মেডিকেল ও একটি ডেন্টাল কলেজ এবং আট বিশেষায়িত ইনস্টিটিউটের মেডিসিন বিভাগের জন্য ১৮৩ পদ সৃজন এবং বাংলাদেশ টেলিভিশনের সাংগঠনিক কাঠামোয় টেলিফোন প্রকৌশলীর সাত পদের নাম সংশোধন প্রস্তাব বৈঠকে উঠবে।

এর বাইরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সরকারীকরণের আগে কর্মরতদের আত্তীকরণের লক্ষ্যে ২৮ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬৬৫ পদ, দুটি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৩৪, দুটি কলেজের ৪৯ পদসহ ৭৪৮ পদ সৃষ্টির জন্য প্রস্তাব দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ।