The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
সোমবার, ২৪শে জুন, ২০২৪

নতুন বছরে তারুণ্যের প্রত্যাশা

প্রবাদ বাক্যে আছে সময় ও স্রোত কারও জন্য অপেক্ষা করে না।
শেষ হলো আরও একটি বছর। বিভিন্ন বিষয়ে সমালোচনা আর অঘটনের মধ্য দিয়ে কেটেছে এ বছর। বিদায়ী বছরটি প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তির স্মৃতি পেছনে ফেলে নতুন বছরে নতুন আশায় বুক বাঁধতে পিছিয়ে নেই তরুণরাও। নতুন বছরে কয়েকজন তরুণ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভাবনা, প্রত্যাশা-প্রাপ্তি আর স্বপ্নের কথা তুলে ধরেছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও রাইজিং ক্যাম্পাসের সাকিবুল ইসলাম।

চব্বিশের সূচনালগ্নে বয়ে আসুক অনাবিল আনন্দঃ

হাজার প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তিতে কেটে গেল একটি বছর। অনেক কিছু যেমন পেয়েছি তেমনি জীবন থেকে হারিয়েছি অনেক মূল্যবান সম্পদ। নতুন জায়গায় মানিয়ে নেওয়াটা ছিল এই বছরের সবচেয়ে বড় বাধা। প্রথমে অনেক ভয়ে থাকলেও বন্ধু নামক কিছু মানুষ পাশে থাকায় সব কিছু সহজেই হয়ে গেল। তৈরি হলো নতুন সম্পর্ক, সবাই যেন একটি পরিবার। সব বিপদে পাশে থাকা, খারাপ সময় সাপোর্ট করা এটিই যেন এই পরিবারের নিয়ম। তাই মানিয়ে নেওয়টা সহজ হয়ে গেল। চব্বিশের সূচনায় অপ্রাপ্তির কষ্ট মনে রাখতে চাই না। তেইশের উপসংহারে হরতাল, অবরোধ বিভিন্ন কারণে প্রায় সকলের জীবন হুমকি মুখে। দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতি, রেল দূর্ঘটনা সব মিলিয়ে উপসংহার হয়ে উঠেছে ভয়ংকর। আল্লাহর কাছে এইটুকুই চাওয়া নতুন বছর সকলের জীবনে আনন্দ আর আশা নিয়ে আসুক।
নতুন বছরের শুভেচ্ছা।

সায়মা আফরোজ
শিক্ষার্থী, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ

নতুন বছর হোক সফলতা আর শান্তির নীড়ঃ 

আমরা নতুন বছর আসার আগেই চিন্তা করি, পুরনো বছরের যত দুঃখ, দুর্দশা, যুদ্ধ, অশান্তি আছে, সব বাধা বিপত্তি পার করে নতুন বছর যেন শান্তি আর সাম্যের প্রতীক নিয়ে আসতে পারে। কিন্তু নতুন বছর যখন আসে, তখন আমাদের জীবনে কিছু না কিছু বাধা বিপত্তি এবং অনিয়ম আর বিশৃঙ্খলা লেগেই থাকে। কিছু কিছু সফলতার পাশাপাশি ব্যর্থতাও থাকে। এই বছর অনেক কিছু দিয়েছে যেটা কল্পনাতীত। সরকারের উন্নয়ন, নানা রকম বৈদেশিক বাধা, সকল বৈদেশিক চাপ কে পরোয়া না করে মেট্রোরেল, ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, বঙ্গবন্ধু ট্যানেল উদ্বোধন করে দেখিয়ে দিয়েছে, আমরা দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্র বানাতে সদা প্রস্তুত। এছাড়া আমাদের জীবনে বিপর্যয়ও এসেছে, তা হচ্ছে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি নানা রকম রাজনৈতিক অস্থিরতা। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, ইজরায়েল-ফিলিস্তিন যুদ্ধ, পণ্য বয়কট নানা ঘটনায় কেটেছে এ বছর। আশা করি নতুন সাল সুন্দর আরও পরিপূর্ণ ভাবে উপভোগ করতে পারব। সকল অস্থিরতা দূর হবে, পৃথিবী হবে স্বাভাবিক।

নাফিস সাকিব ইসলাম
শিক্ষার্থী, সমাজকর্ম বিভাগ

উঁকি দিচ্ছে সম্ভাবনার এক নতুন বছরঃ

দিন, সপ্তাহ, পক্ষ, মাস গড়িয়ে পার হলো একটি বছর। সময় ও স্রোতের ধারাবাহিকতার শেষ আরও একটি বছর। কালের খেয়ায় চড়ে এলো নতুন বছর। গত বছরের সব সুখ, দুঃখ, দেনা-পাওনা, আশা-আকাঙ্ক্ষা, প্রিয়ও প্রীতি, আবেগ- অনুভূতির হিসাব চুকিয়ে উঁকি দিচ্ছে সম্ভাবনার এক নতুন বছর। পুরনো বছরের সকল অপ্রাপ্তিকে বিসর্জন দিয়ে নতুন বছরে নতুনত্ব নিয়ে এগিয়ে যাব আমরা। সময়ের পরিক্রমায় সফলতা অর্জনের ধারাবাহিকতায় এগিয়ে যাবে পুরো দেশ। যেখানে থাকবে প্রতিটি মানুষের অপ্রাপ্তি থেকে প্রাপ্তি, ব্যর্থতা থেকে সফলতা অর্জনের প্রয়াস।

“নতুন বছর আসুক নিয়ে নতুন নতুম আশা,
পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিক শুধুই ভালোবাসা।”

মিতু রানী দাস
শিক্ষার্থী, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ

 

নতুন বছর হোক দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশঃ 

বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন বছর হোক সবার জন্য উন্নতি ও সাফল্যের বছর। দেশ জুড়ে প্রতারক, প্রতারণা আর দুর্নীতির ছড়াছড়ি। হঠাৎ করে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি, ভূয়া চিকিৎসা, সরকারি – বেসরকারি কাজে দুর্নীতি, শিক্ষা ব্যবস্থার ত্রুটি, সাইবার ক্রাইম সহ সকল ক্ষেত্রেই সাধারণ জনগণকে পরতে হয় নিদারুণ ভোগান্তিতে। এমনকি অনলাইন থেকে পণ্য ক্রয়ে ক্রেতাকে হতে হয় প্রতারিত। লাল ফিতার দৌরাত্যের কারণে অযোগ্য ব্যক্তি অধিষ্ঠিত হচ্ছে উচ্চাসনে আর পিছিয়ে পরছে যোগ্য ব্যক্তি। নতুন বছরে এসকল প্রতারক, প্রতারণা আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর ভাবে সোচ্চার হতে হবে। সেজন্য আমাদের মতো তরুণদের সমাজকে নতুন বছরে, নতুন উদ্দীপনা নিয়ে যার যার জায়গা থেকে কাজ করে যেতে হবে।

আফ্রিয়া অলিন
শিক্ষার্থী, সমাজকর্ম বিভাগ

সুখ-সমৃদ্ধিতে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশঃ

তেইশ নিয়ে লিখতে বসলে হয়তো লেখা শেষ হবে না। এই তেইশের শুরুতে হয়তো জীবনের সেরা মুহূর্ত গুলো কাটিয়েছি, পাবলিকিয়ান হতে পেরেছি। তারপরও এক জায়গায় থেমে থাকলে চলে না, সামনে জাতিকে ভালো কিছু উপহার দেয়ার অভিপ্রায়ে এগোতে হবে। নতুন বছরে নতুন কিছু করার আমেজ লেগে যায়, তাইতো আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনের মধ্য দিয়ে এক অনন্য জাতির পথে ধাবিত হতে চাই। স্বপ্ন যেন দুঃস্বপ্ন না হয়-এমন প্রত্যাশা করি। আমরা নতুন করে পথ চলতে পারব। নতুন স্বপ্নের কথা বলতে পারব। সব ধরনের প্রতিকূলতা ছাড়িয়ে এগিয়ে যেতে পারব সামনে। দেশের মানুষের প্রত্যাশা এ রকমই। সবার চাওয়া ভবিষ্যত যেন ভাল হয়। নতুন বছরে মনুষ্যত্ববোধের সূচনা হোক মানুষের মধ্যে।

নিরব চৌধুরী
শিক্ষার্থী, সমাজকর্ম বিভাগ

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.