দিনে কয়টি ‍ডিম খেলে শরীরের ক্ষতি হবে না

শিশুদের পুষ্টিতে রোজ একটি ডিম খাওয়ার কথা শোনা যায় নানা মাধ্যমে। কিন্তু যাঁরা মাঝবয়স পার করেছেন, তাঁদের জন্য কি প্রতিদিন ডিম খাওয়া নিরাপদ? বয়স্করা কয়টি ডিন খেতে পারবেন দিনে?

ডিমে কোলেস্টেরল বাড়ে- এমন ধারণা নতুন নয়। অনেকেই ভাবেন, ডিম খেলে বাড়ে কোলেস্টেরল। অনেকেই মধ্যবয়স পেরিয়ে গেলে এ ভয়ে ডিম খাওয়া বন্ধ করে দেন। তবে গবেষণা বলছে অন্য কথা। হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের গবেষণা অনুযায়ী, সুস্থ মানুষের দৈনিক একটি করে ডিম খাওয়া বিপজ্জনক নয়।

ডিমে ভিটামিন এ, ভিটামিন ডি ও ভিটামিন বি ১২ রয়েছে। তা ছাড়া ডিমে কমবেশি ৭৫ গ্রাম ক্যালোরি, পাঁচ গ্রাম ফ্যাট, ছয় গ্রাম প্রোটিন, ৬৭ মিলিগ্রাম পটাসিয়াম, ৭০ গ্রাম সোডিয়াম ও ২১০ মিলিগ্রাম কোলেস্টেরল রয়েছে।

এক জন সুস্থ ব্যক্তি দৈনিক ৩০০ মিলিগ্রাম কোলেস্টেরল নিতে পারেন। কাজেই দিনে একটি ডিম খেলে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। তবে অনেক সময় সংবহনতন্ত্রের সমস্যা থাকলে আগে থেকে বোঝা যায় না। অনেকেই বুঝতে পারেন অসুস্থতার কথা। তাই সতর্ক থাকতে, মধ্যবয়স পেরিয়ে গেলে সপ্তাহে তিনটি করে ডিম খাওয়া যেতে পারে। মন খুঁতখুঁত করলে কুসুম বাদ দিয়ে খেতে পারেন।

তবে ডায়াবিটিসে আক্রান্ত রোগী কিংবা হৃদ্‌যন্ত্রের সমস্যায় ভোগা মানুষদের ডিম খাওয়ায় লাগাম টানার পরামর্শ চিকিৎসকদের। ডিমে থাকে অ্যাভিডিন নামে গ্লাইকোপ্রোটিন। এটি কিছু ক্ষেত্রে দেহে ভিটামিন বি৭-এর ভারসাম্য নষ্ট করতে পারে। কাজেই রোজ ডিম খেতে চাইলে বা পুষ্টি সংক্রান্ত প্রশ্ন থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে খাওয়া উচিত। সূত্র: আনন্দবাজার।