The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
বৃহস্পতিবার, ১৩ই জুন, ২০২৪

ডুয়েটের পরীক্ষা শুরু ১০ সেপ্টম্বর, পাস নম্বর ৪০ শতাংশ

ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ও ব্যাচেলর অব আর্কিটেকচার প্রোগ্রামের ভর্তি পরীক্ষা (সম্ভাব্য তারিখ) ১০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে। শেষ হবে ১১ সেপ্টেম্বর। প্রতিদিন সকাল-বিকাল দুই শিফটে ৪ ধাপ করে বিশ্ববিদ্যালয়টির ৯ বিভাগের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ৩০০ নম্বরের পরীক্ষায় সর্বনিম্ন পাশ নম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে ৪০ শতাংশ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ৩১ জুলাই সকাল ১০টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়টির ভর্তি আবেদন শুরু হয়েছে। চলবে আগামী ২৫ আগস্ট পর্যন্ত। আবেদন শেষে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে ৩১ জুলাই থেকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা ঘোষণা করা হবে ৩১ আগস্ট বিকাল ৪টায়।

ভর্তি পরীক্ষা শেষে ভর্তির জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের তালিকা ২৬ সেপ্টম্বর প্রকাশিত হবে। ভর্তি বিষয়ক তথ্যাবলী http://admission.duetbd.org এ পাওয়া যাবে। চলতি শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ১৮০ টাকা। ভর্তি ফি নগদ/DBBL মোবাইল ব্যাংকিং-এর মাধ্যমে দিতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষার রুটিন অনুযায়ী, ভর্তি পরীক্ষার প্রথম দিনে শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালের শিফটে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ও কেমিক্যাল এন্ড ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকালের প্রথম ধাপে ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত প্রথম পত্র ও দ্বিতীয় ধাপে বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বিকেলের শিফটে ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও মেটেরিয়ালস এন্ড মেটালার্জিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিকেলে প্রথম ধাপে ২টা থেকে ৩টা প্রথম পত্র ও দ্বিতীয় ধাপে ৩টা থেকে ৪টা দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

পরের দিন ১১ সেপ্টেম্বর (রবিবার) সকালের শিফটে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ও আর্কিটেকচার বিভাগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এদিন সকালে প্রথম ধাপে ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত প্রথম পত্র ও দ্বিতীয় ধাপে ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিন বিকেলে শিফটে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ও ইন্ডাষ্ট্রিয়াল এন্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিকেলে প্রথম ধাপে ২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত প্রথম পত্র ও ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

ভর্তি পরীক্ষার বিষয়সমূহ ও নম্বর বিভাজন

প্রথম পত্র: রসায়ন ৪০, পদার্থ বিজ্ঞান ৪০, গণিত ৪০, ইংরেজি ৩০। দ্বিতীয় পত্র: টেকনিক্যাল বিষয় ১৫০। মোট ৩০০ নম্বর।

প্রার্থী বাছাই

ভর্তি পরীক্ষায় পাশ নম্বর সর্বনিম্ন শতকরা চল্লিশ (৪০%)। তবে ১ম ও ২য় পত্রে পৃথক পৃথকভাবে শতকরা পঁয়ত্রিশ (৩৫%) নম্বরের কম পেলে ভর্তির অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। কেবলমাত্র ভর্তি পরীক্ষায় কৃতকার্য প্রার্থীদের মধ্য হইতে প্রাপ্ত মোট নম্বরের মেধা ভিত্তিতে আসন পূরণ করা হবে।

আসন সংখ্যা

সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ১২০ জন, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং ১২০ জন, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ১২০ জন, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ১২০ জন, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ৬০ জন, আর্কিটেকচার ৩০ জন, ইন্ডাষ্ট্রিয়াল এন্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং ৩০ জন, কেমিক্যাল এন্ড ফুড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দুই বিভাগের ১৫+১৫= ৩০ জন এবং মেটেরিয়ালস এন্ড মেটালার্জিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ৩০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.