The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
শুক্রবার, ১২ই জুলাই, ২০২৪

জাপানের সুমিতমো কর্পোরেশন বৃত্তি পেলেন ঢাবি’র ৪০ শিক্ষার্থী

বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষে স্নাতক সম্মান শ্রেণিতে অধ্যয়নরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে জাপানের সুমিতমো কর্পোরেশন বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান আজ ১৬ মার্চ ২০২৩ বৃহস্পতিবার নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে আয়োজিত এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কৃতী শিক্ষার্থীদের হাতে বৃত্তির চেক তুলে দেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ঢাকাস্থ জাপান দূতাবাসের মন্ত্রী মি. মাচিদা তাৎসুয়া এবং সুমিতমো কর্পোরেশনের জেনারেল ম্যানেজার মি. শিনিচি নাগাতা বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। বৃত্তিপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করেন সুমিতমো কর্পোরেশনের জেনারেল ম্যানেজার (বিজনেস অ্যাফেয়ার্স) মো. রাশিদুল হাসান। অনুষ্ঠান সঞ্চালন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রবীর কুমার সরকার।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বৃত্তিপ্রাপ্তদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মানবিক মূল্যবোধসম্পন্ন সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান করায় তিনি সুমিতমো কর্পোরেশনকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশ এবং জাপানের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবৎ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বিরাজ করছে। স্বাধীনতা অর্জনের পর থেকে বাংলাদেশের সার্বিক আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে জাপান সরকারের সহযোগিতার কথা তিনি শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন। ভবিষ্যতেও এই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

প্রথম বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণির বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- মো. সজল হোসেন (নিউক্লিয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং), শিমু শাহা (ফিন্যান্স), শেখ শাকিল হোসেন (রাষ্ট্রবিজ্ঞান), তাসনিম জুয়াইরিয়া বিন্তি (জাপানিজ স্টাডিজ), গোলাম মোস্তফা (মার্কেটিং), সাদিয়া চৌধুরী (গণিত), লেসমি রানী (ইতিহাস), মাহমুদা খাতুন (রাষ্ট্রবিজ্ঞান), ইব্রাহিম সরকার (একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস) এবং তানজিনা আক্তার (আইন)।

দ্বিতীয় বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণির বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- মতিয়া নূর রাইসা (জিন প্রকৌশল ও জীব প্রযুক্তি), আহমেদ আদনান (আই.আই.টি), মাজহারুল ইসলাম (ইসলামিক স্টাডিজ), মোঃ রেদওয়ানুল ইসলাম (গণিত), আরিফা হক (পদার্থ বিজ্ঞান), মাইকেল সাগর সরকার (আইন), মোঃ কামরুল হাসান রাব্বি (একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস), ত্রিশা নন্দী (একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস), আব্দুল মুহাইমিন (আন্তর্জাতিক সম্পর্ক) এবং আপেল চন্দ্রো (মনোবিজ্ঞান)।

তৃতীয় বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণির বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- বুশরা জাহান (ইংরেজী), রেসমা আক্তার (ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি), নুজহাত নুয়েরি খান (গণিত), রুবাইয়া ইসলাম (আইন), ফজলে আজম (আইন), সালমা আক্তার ঝুমা (একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস), মোঃ তৌহিদুল ইসলাম (অর্থনীতি), ফরহাদী আনোয়ার (মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ), আজফা তৌহিদা দৈবী (ডিজাস্টার সায়েন্স এন্ড ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্স) এবং মোছা: সিফাত-ই-সুলতানা (শিক্ষা ও গবেষণা)।

চতুর্থ বর্ষ স্নাতক সম্মান শ্রেণির বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- রুবাইয়াত হাসান শাওন (আইন), মোঃ সোহানুল ইসলাম (একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস), মোহাইমিনুল হক (মার্কেটিং), মোঃ রাকিবুল ইসলাম ও মোঃ চঞ্চল মাহমুদ (ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস), মোসাঃ ফাতিহা খাতুন (অর্গ্যানাইজেশন স্ট্র্যাটেজি এন্ড লিডারশীপ), বুশরা রহমান ও তানজিলা আকতার (মৃত্তিকা, পানি ও পরিবেশ), মোঃ আরিফুল ইসলাম (লেদার ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজি) এবং সায়মা আলম (পুষ্টি ও খাদ্য বিজ্ঞান)।

 

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.