The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ২৫শে জুন, ২০২৪

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে এবার বাড়বে জিপিএ

দেশের সবচেয়ে বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি হয় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত দেশের বিভিন্ন কলেজে। তবে এখানে ভর্তি হতে অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মত ভর্তি পরীক্ষা দিতে হয়না। এসএসসি-এইচএসসি জিপিএর ভিত্তিতে ভর্তি নেয়া হয়। পরীক্ষা ছাড়া শুধুমাত্র জিপিএর ভিত্তিতে ভর্তি নেয়া হয় বলে অনেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। সেদিক বিবেচনা করে চলতি ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষ থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক ১ম বর্ষে ভর্তিতে নূন্যতম জিপিএ বাড়ানোর চিন্তা করছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

তথ্যমতে, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষ থেকে ভর্তি পরীক্ষা বাদ দিয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত দেশের বিভিন্ন কলেজে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার জিপিএর ভিত্তিতে স্নাতকে শিক্ষার্থী ভর্তি নেওয়া হচ্ছে। তার আগে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী বাছাই করা হতো

বর্তমানে মানবিক শাখা থেকে এসএসএসিতে জিপিএ ২.৫০ পয়েন্ট এইচএসসিতে চতুর্থ বিষয়সহ ২.৫০ পয়েন্ট ও বিজ্ঞান এবং ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে এসএসএসিতে জিপিএ ৩.০০ পয়েন্ট এইচএসসিতে চতুর্থ বিষয়সহ ২.৫০ পয়েন্ট প্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা স্নাতক ১ম বর্ষে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারে।

তবে এবার জিপিএ পদ্ধতিতে পরিবর্তন আসতে পারে। ২০২১-২২ শিক্ষা বর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ১ম বর্ষ ভর্তি আবেদনের ক্ষেত্রে নূন্যতম জিপিএ পয়েন্ট বাড়ানোর চিন্তা করছে বিশ্ববিদ্যালয়।

এ বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মশিউর রহমান বলেন, এবারও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা হবেনা তবে ভর্তিতে নূন্যতম জিপিএ যেটা লাগবে সেটা হয়তো বাড়ানোর চিন্তা আছে। এর মাধ্যমে কোয়ালিটিফুল শিক্ষার্থী পাবো বলে আমরা আশা করছি।

তিনি আরও বলেন, এখন যে সিস্টেমে ভর্তি নেয়া হয় সেটা নিয়ে কোন প্রশ্ন উঠেনি। শুধু গুণগত মানের শিক্ষার্থীর কথা বলা হয়েছে। সেটা আমরা জিপিএ বাড়ালে পেয়ে যাবো। তবে সিদ্ধান্তের ব্যাপারে আমি এককভাবে বলতে পারছিনা। ভর্তি কমিটির মিটিং হলে, সবার সাথে আলোচনা করে যদি মনে হয় বাড়ানো দরকার তাহলে আমরা নূন্যতম জিপিএ বাড়াবো।

তবে কোন বিভাগে কত পয়েন্ট বাড়ানো হবে সে বিষয়ে কিছু জানানি উপাচার্য। ভর্তি কমিটির সভায় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে দেশে অর্ধশত স্বায়ত্তশাসিত ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এরমধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় ও ৪টি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া বাকিগুলোতে সরাসরি ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি হয়ে থাকে।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.