The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
মঙ্গলবার, ৫ই মার্চ, ২০২৪

জবির নতুন আবাসিক হলে সিট বরাদ্দ পেলেন ১২০০ ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) নবনির্মিত আবাসিক হলে আসন বরাদ্দ পেয়েছেন ১২০০ ছাত্রী।

বৃহস্পতিবার রাতে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে তালিকাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে , জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের আবাসিকতা লাভের জন্য ছাত্রীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে সিট বরাদ্দের তালিকা প্রকাশ করা হলো।

এতে আরও বলা হয়েছে- যারা হলে সিটের বরাদ্দ পেয়েছেন এসব ছাত্রীদের কাগজপত্র (আবেদন ফর্ম, নগদ কিংবা রকেট অথবা শিউরক্যাশের মাধ্যমে ৫ হাজার ২৬৫ টাকা পরিশোধকৃত জমার রশিদ, হলে বসবাসের শর্তাবলীর অভিভাবক ও ছাত্রীর স্বাক্ষরিত কপি, অঙ্গিকারনামা ও পাসপোর্ট সাইজ ছবি) জমা দিতে হবে।

আগামী ২ মার্চ থেকে ১০ মার্চের মধ্যে হলের হাউজ টিউটরের নিকট জমা দিতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ ।

এই বিষয় এ হল প্রভোস্ট ড. শামিমা বেগম বলেন, দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টার পর হল চালু হতে যাচ্ছে। আমরা ১২০০ ছাত্রী তালিকা প্রকাশ করেছি। আগামী ১৭ মার্চ আড়ম্বরপূর্ণ পরিবেশে ছাত্রীরা হলে উঠবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১ অক্টোবর বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে আসন বরাদ্দের জন্য ছাত্রীদের কাছ থেকে অনলাইনে আবেদন আহ্বান করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অনলাইনে আবেদন চলে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত। ১৬তলা বিশিষ্ট এই হলটির ১৫৬টি কক্ষে ছাত্রীদের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। হলের নিচতলা ও দোতলায় রয়েছে লাইব্রেরি, ক্যান্টিন ও ডাইনিং। অবশেষে দীর্ঘ ১৭ বছর পরে অনাবাসিক তকমা মুছে মেয়েদের একটা হলের ব্যবস্থা করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.

  1. প্রচ্ছদ
  2. ক্যাম্পাস
  3. জবির নতুন আবাসিক হলে সিট বরাদ্দ পেলেন ১২০০ ছাত্রী

জবির নতুন আবাসিক হলে সিট বরাদ্দ পেলেন ১২০০ ছাত্রী

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) নবনির্মিত আবাসিক হলে আসন বরাদ্দ পেয়েছেন ১২০০ ছাত্রী।

বৃহস্পতিবার রাতে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে তালিকাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে , জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের আবাসিকতা লাভের জন্য ছাত্রীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে সিট বরাদ্দের তালিকা প্রকাশ করা হলো।

এতে আরও বলা হয়েছে- যারা হলে সিটের বরাদ্দ পেয়েছেন এসব ছাত্রীদের কাগজপত্র (আবেদন ফর্ম, নগদ কিংবা রকেট অথবা শিউরক্যাশের মাধ্যমে ৫ হাজার ২৬৫ টাকা পরিশোধকৃত জমার রশিদ, হলে বসবাসের শর্তাবলীর অভিভাবক ও ছাত্রীর স্বাক্ষরিত কপি, অঙ্গিকারনামা ও পাসপোর্ট সাইজ ছবি) জমা দিতে হবে।

আগামী ২ মার্চ থেকে ১০ মার্চের মধ্যে হলের হাউজ টিউটরের নিকট জমা দিতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ ।

এই বিষয় এ হল প্রভোস্ট ড. শামিমা বেগম বলেন, দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টার পর হল চালু হতে যাচ্ছে। আমরা ১২০০ ছাত্রী তালিকা প্রকাশ করেছি। আগামী ১৭ মার্চ আড়ম্বরপূর্ণ পরিবেশে ছাত্রীরা হলে উঠবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১ অক্টোবর বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে আসন বরাদ্দের জন্য ছাত্রীদের কাছ থেকে অনলাইনে আবেদন আহ্বান করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অনলাইনে আবেদন চলে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত। ১৬তলা বিশিষ্ট এই হলটির ১৫৬টি কক্ষে ছাত্রীদের থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। হলের নিচতলা ও দোতলায় রয়েছে লাইব্রেরি, ক্যান্টিন ও ডাইনিং। অবশেষে দীর্ঘ ১৭ বছর পরে অনাবাসিক তকমা মুছে মেয়েদের একটা হলের ব্যবস্থা করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ।

পাঠকের পছন্দ

মন্তব্য করুন