The Rising Campus
News Media

জবির অধ্যাপকের কাছে হিরো আলম আবৃত্তিচর্চা করছেন

বগুড়ার ছেলে আশরাফুল হোসেন ওরফে হিরো আলম। তার নামের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে ভাইরাল শব্দটি । সোশ্যাল মিডিয়ায় মিউজিক ভিডিওর মাধ্যমে হইচই ফেলা এই যুবক এখন পুরো বাংলার মানুষের কাছে যেভাবেই হোক পরিচিত। শোবিজের বিভিন্ন মাধ্যমে নিজেকে তুলে ধরার চেষ্টা তার প্রতিনিয়ত। আছে শত সমালোচনা, তবে কোনো কিছুকে তোয়াক্কা না করেই কাজ করে যাচ্ছেন হিরো আলম। জানাগেছে এবার তিনি কবিতা আবৃত্তি করবেন।

হিরো আলম জানিয়েছেন, তার নিজের জীবন নিয়েই লেখা একটি কবিতা আবৃত্তি করবেন তিনি। এ কবিতার মাধ্যমে উঠে আসবে তার জীবনের দুঃখ-দুর্দশার চিত্র । তারই প্রস্তুতি চলছে গত দুই মাস ধরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক জুয়েল আদীবের কাছে আবৃত্তিচর্চার মাধ্যমে।

তিনি আরও বলেন, একটি পোয়েট্রিক্যাল ফিল্ম নির্মাণ করা হবে। আবৃত্তির পাশাপাশি এতে অভিনয় করব আমি নিজেই। তিনি আশা করছেন এটা আমার জীবনের সেরা কাজগুলোর একটি হবে।

প্রায় আট মিনিট দৈর্ঘ্যের এই পোয়েট্রিক্যাল ফিল্মটি পরিচালনা করবেন অতিন্দ্র কান্তি অজু। কবিতাটিও লিখেছেন তিনি। কবিতাটির সংগীতায়োজন করেছেন মাহাবুবুর রহমান টুনু। ‘হাসিওয়ালা’ নামের এই পোয়েট্রিক্যাল ফিল্মে হিরো আলমের সঙ্গী হচ্ছেন রিয়া মনিসহ কয়েকজন।

নিজের জনপ্রিয়তা প্রসঙ্গে হিরো আলম বলেন, ‘কোনো সাইটে হিরো আলম নেই। আমার ফ্যান-ফলোয়ার কত আছে সেটা আপনারা আমার সোশ্যাল মিডিয়ায় গেলেই দেখতে পারবেন। আমার প্রচুর ফ্যান-ফলোয়ার, এটা তো আমি বললে হবে না। আপনারা নিজেরাই যাচাই করে দেখবেন।’

হিরো আলম আরও বলেন, ‘দর্শকদের ভালোবাসার কারণেই আমি এতদূর আসতে সক্ষম হয়েছি। আপনারা যেভাবে আমাকে সাপোর্ট দিয়েছেন, ভবিষ্যতেও সেভাবেই পাশে থাকবেন। আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা নিয়িই আমি আরো ভালো ভালো কাজ করতে চাই।’

1
You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.