The Rising Campus
Education, Scholarship, Job, Campus and Youth
রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪

ছাত্রলীগ পরিচয়ে হল থেকে ডেকে নিয়ে ‘মারধর’

কলেজ প্রতিনিধিঃ কবি নজরুল সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে এক সাধারণ শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ পরিচয়ধারী তিনজনের বিরুদ্ধে। সোমবার (২২ জানুয়ারি) কলেজ ক্যাম্পাসের ছাত্র সংসদে এ ঘটনা ঘটেছে। ভুক্তভোগী সিফাত রহমান শিমুল ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

অভিযুক্ত তিনজন হলেন ছাত্রলীগ পরিচয়ধারী মেহেদী হাসান পলাশ, রাকিব ও সুমন। পলাশের নেতৃত্বে ১৫-১৬ জন গতকাল দুপুর ২টায় কলেজ ছাত্র সংসদের ভেতরে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী শিমুলকে পরীক্ষার হল থেকে বের করে নিয়ে গিয়ে ঘটনাটি ঘটানো হয়।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী শিমুল বলেন, সোমবার ইনকোর্স পরীক্ষার হলে থেকে ছাত্রলীগ নামধারী পলাশের নেতৃত্বে ১৫-১৬ জন আমাকে ডেকে নিয়ে হলের বাইরে যায়। এরপর আমার পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তারা আমাকে কলেজ ছাত্র সংসদের ভেতরে নিয়ে যায়। এ সময় আমাকে শারীরিক আঘাত করে এবং আমার কাছে থাকা সব জিনিস বের করতে বলে। আমি কেন ডিপার্টমেন্টে সি আর হলাম এবং আমি ছাত্রদল করি অভিযোগ তুলে আমাকে ক্যাম্পাসে না আসতে হুমকি দেন। আমি তাদের প্রশ্ন করলে আমাকে টেনেহিঁচড়ে ছাত্র সংসদে ছাত্রলীগের অফিসে নিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, ঘটনার শেষ দিকে আমাকে বেধড়ক মারধর করে আমার ফোনসহ মানিব্যাগে থাকা ১ হাজার ৫০০ টাকা নিয়ে যায়। আমি আমার ডিপার্টমেন্টে এ বিষয়ে অভিযোগ করেছি এবং আমি থানায় একটি জিডিও করব।

এ নিয়ে কবি নজরুল সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বেলায়েত হোসেন সাগর বলেন, ছেলেটি ছাত্রদল করে ও একটা কমিটির নেতা। ওকে মারা বা ওর ফোন-টাকা নেওয়া হয়নি। শুধু বলা হয়েছে কলেজ ক্যাম্পাসে যেন ছাত্রদলের প্রচার না করে।

তবে কবি নজরুল কলেজ ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফাহিম বলেন, ছেলেটি ছাত্রদলের কোনো পদধারী নেতা বা কর্মী নয়। ছাত্রদলের সমর্থক হতে পারে। দেশে ছাত্রলীগের নৈরাজ্যের কারণে ছাত্রসমাজ আজ ছাত্রদলের প্রতি বিশ্বাস করতে শুরু করেছে।

এ বিষয়ে কলেজ অধ্যক্ষের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করলে তাকে পাওয়া যায়নি।

You might also like
Leave A Reply

Your email address will not be published.