চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবিতে সোমবার মানববন্ধন

এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ১৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগে গত ফেব্রুয়ারিতে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। তবে এখনো সেই বিজ্ঞপ্তির ফল প্রকাশ করা হয়নি। এপ্রিলের মধ্যে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার কথা বলা হলেও কোনো তোড়জোড় নেই।

এবার তাই বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল ও দ্রুত চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের দাবিতে আন্দোলনে নামছেন ১৬তম নিবন্ধনে উত্তীর্ণরা। দাবি দুটি আদায়ে সোমবার (১৮ এপ্রিল) মানবন্ধনের ডাক দিয়েছেন তারা। সকাল ১০টায় এনটিআরসিএ-এর সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হবে। মানববন্ধন শেষে এনটিআরসিএ চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি দেবেন প্রার্থীরা।

এ বিষয়ে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রত্যাশী প্রার্থী ইমরান খান বলেন, মামলা বা অন্য কোনো অজুহাতে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল ও চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির কার্যক্রম বিলম্বিত করা যাবে না। দ্রুত বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল প্রকাশ করে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির কার্যক্রম শুরু করার দাবি জানাচ্ছি।

গণবিজ্ঞপ্তি প্রত্যাশী ফোরামের সভাপতি শান্ত আহমেদ বলেন, প্রার্থীদের বয়স, আর্থিক দুরবস্থা ও উচ্চ শিক্ষিত বেকারদের সামাজিক মর্যাদা ও মানবিক দৃষ্টিকোণ বিবেচনা করে হলেও দ্রুত একটা সমাধান করা উচিত। বিকল্প কোনো উপায়ে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফলাফল প্রকাশ করে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির কার্যক্রম শুরু করা নিবন্ধিত প্রার্থীদের প্রাণের দাবি হয়ে দাঁড়িয়েছে।

১৬তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয় ২০১৯ সালের ২৩ মে। প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয় ওই বছরের ৩০ আগস্ট। এর ফল প্রকাশ করা হয় ৩০ সেপ্টেম্বর। লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় ১৫ ও ১৬ নভেম্বর। সর্বোচ্চ দুই মাসের মধ্যে লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশের কথা থাকলেও তা প্রকাশ করা হয় এক বছর পর ২০২০ সালে ১১ অক্টোবর।

লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশের এক বছরেরও বেশি সময় পর ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর ১৬তম নিবন্ধনের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করা হয়। কিন্ত দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পর সারাদেশের সব প্রতিষ্ঠানে চরম শিক্ষক সংকটের মাঝেও এখনও গণবিজ্ঞপ্তি পাননি এ নিবন্ধনধারীরা।