চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রায় ৭০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে।

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রায় ৭০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে। এই ৭০ হাজার পদই এমপিও পদ। নন এমপিও পদের চাহিদা নেওয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশের লক্ষ্যে শূন্য পদের তথ্য সংগ্রহ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। প্রাপ্ত তথ্যগুলো উপজেলা এবং জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের মাধ্যমে যাচাইয়ের কাজ শেষ হয়েছে। তবে এই তথ্য আরও যাচাই-বাছাই করা হবে। যাচাই-বাছাই শেষে তালিকা ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে।

এনটিআরসিএ বলছে, আগামী অক্টোবর মাসের শেষ দিকে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে। তবে এটি নির্ভর করছে যাচাই করতে কত সময় লাগবে সেটির ওপর। এছাড়া নন এমপিও পদের চাহিদা নেওয়ার বিষয়ে কোনো কিছু ভাবছে না কর্তৃপক্ষ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এনটিআরসিএ’র এক কর্মকর্তা, নন এমপিও পদে চাহিদা নেওয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এমপিও পদগুলো যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে। এটি আরও যাচাই করা হবে। এটি শেষ হলে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে।

নন এমপিও পদে চাহিদা না নেওয়ার কারণ জানতে চাইলে ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, এই পদে চাহিদা নেওয়ার পর অনেক প্রার্থী অভিযোগ করেন তাদের বেতন হচ্ছে না। ফলে এবার নন এমপিও পদে চাহিদা নেওয়ার বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো চাইলে নন এমপিও পদে খন্ডকালীন শিক্ষক নিয়োগ দিতে পারে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।